''যা করতে হয় তা বলতে নেই'', রামনগর থেকে ফের জল্পনা উস্কে দিলেন শুভেন্দু অধিকারী

''কত পদ আসে যায়। আমি মানুষের পাশে থাকব।'' 

Updated By: Nov 14, 2020, 04:00 PM IST
''যা করতে হয় তা বলতে নেই'', রামনগর থেকে ফের জল্পনা উস্কে দিলেন শুভেন্দু অধিকারী

নিজস্ব প্রতিবেদন- পদ নিয়ে তাঁর মাথাব্যথা নেই। তিনি মানুষের সেবা করতে পারলেই খুশি। মানুষের পাশে থাকতে পারলেই তাঁর রাজনৈতিক জীবন সার্থক। তিনি রাজনীতিবিদ তো বটেই! তবে সবার আগে তিনি মানুষের সেবক। রামনগরে কালী পুজোর উদ্বোধনে গিয়ে ফের স্টেপ আউট করেই খেললেন রাজ্যের মন্ত্রী শুভেন্দ্ অধিকারী। তাঁর সাফ কথা, ''কত পদ আসে যায়। আমি মানুষের পাশে থাকব।'' 

তিনি এদিন আরও বলেন, ''সাধারণ মানুষ আমাকে যে কোনও প্রয়োজনে পাবেন। ভাল সময়ে কম আসি। খারাপ সময়ে শুভেন্দুকে পাশে পাবেন। এখন তো বড়ো পোস্টে আছি। রুলিং পার্টি ইত্যাদি। আগে সবাই ডাকত না। এখন সবাই ডাকে। রামনগর নিয়ে বলার জন্য অনেকে বলেছিলেন। আমি আপনাদের সঙ্গে ছিলাম, আছি, থাকব। আর যা বলতে হয় তা করতে নেই। যা করতে হয় তা বলতে নেই। আগামী ১৯ নভেম্বর আমার একটি মেগা শো আছে রামনগর আরএস ময়দানে। সমবায় সপ্তাহ নিয়ে। ওখানে অনেক সময় পাব। অনেক কথা বলব। বলার সুযোগ পাবো।'' 

আরও পড়ুন-  আলোর উত্সবে রাজ্যবাসীকে 'বাংলা ও হিন্দিতে' শুভেচ্ছা মুখ্যমন্ত্রীর

পুজোর উদ্বোধনে এসে এদিন শুভেন্দু অধিকারী আরও বলেন, ''নন্দীগ্রাম আন্দোলনের পরে অনেক বাহাদূরদের দেখা যায়নি। এখন ফেসবুকে অনেক গালাগালি করেন আমাকে। দরকারে সময় আমাকে প্রয়োজন ছিল। সব পাতনি পাতিয়ে গুছিয়ে নিয়ে চলে গেছে।'' কার্যত অখিল গিরি ও তাঁর গোষ্ঠীর লোকজনদের নাম না করে কটাক্ষ করে গেলেন শুভেন্দু অধিকারী। রামনগরের বন্ধু মহল ক্লাবের কালীপুজোর মণ্ডপ উদ্বোধন করতে এসে শুভেন্দু অধিকারী বলে যান, ১৯ নভেমবর রামনগরের আরএস ময়দানের সমবায়ের সভায় যা বলার বলবেন। রামনগরের বিধায়ক তথা জেলা তৃণমূলের কো-অর্ডনেটর অখিল গিরির গড়ে শুভেন্দুর এমন বক্তব্য অনেক জল্পনা উস্কে দিয়ে গেল।