চুরি করতে এসে গুছিয়ে রান্নাবান্না করে খেল চোরের দল! তারপর বাড়ি 'ফাঁকা' করে চম্পট

বাড়িতে ঢুকে ড্রাম থেকে চাল নিয়ে স্টোভ জ্বালিয়ে ভাত রান্না করে। তারপর ফ্রিজে থাকা লঙ্কা ও পিঁয়াজ ভাজা করে ভাত খায় তারা৷

Updated By: Sep 14, 2019, 02:08 PM IST
চুরি করতে এসে গুছিয়ে রান্নাবান্না করে খেল চোরের দল! তারপর বাড়ি 'ফাঁকা' করে চম্পট

নিজস্ব প্রতিবেদন : ফাঁকা বাড়িতে ঢুকে রান্নাবান্না করে খেল চোরের দল। তারপর নগদ ৪৫ হাজার ও লক্ষাধিক টাকার সোনার গয়না নিয়ে চম্পট দেয় ৷ ঘটনাটি ঘটেছে নরেন্দ্রপুর থানা এলাকার পুর্ব আদর্শনগরে ৷

জানা গিয়েছে, বাড়িতে একাই থাকেন শেফালি সর্দার ৷ স্বামীর আগেই মৃত্যু হয়েছে ৷ এক ছেলে কর্মসূত্রে বাইরে থাকে। আর সোনারপুরের উত্তরায়ণপল্লিতে মেয়ের শ্বশুরবাড়ি ৷ মেয়ে সন্তানসম্ভবা ৷ গতকাল মেয়ের বাড়িতে গিয়েছিলেন শেফালি সর্দার ৷ রাতে সেখানেই থেকে গিয়েছিলেন তিনি ৷ সকালবেলায় বাড়ি ফিরে ঘরে পা দেওয়া মাত্র দেখেন, সব লন্ডভন্ড ৷ রান্নাঘরও লন্ডভন্ড ৷

শেফালি দেবী জানিয়েছেন, চোরের দল বাড়িতে ঢুকে ড্রাম থেকে চাল নেয়।  ফ্রিজে শুধু লঙ্কা ছিল। সেগুলো নেয়। স্টোভ জ্বালিয়ে ভাত রান্না করে। তারপর লঙ্কা ও পিঁয়াজ ভাজা দিয়ে সেই ভাতই খায় তারা ৷ সকালবেলা বাড়ি ফিরে রান্নাঘরে ঢুকতেই চোখে পড়ে চোরেদের এই  খাওয়ার নমুনা।

বাড়িতে কেউ না থাকায় ধীরে সুস্থে রান্নাবান্না করে। খায় দায়। তারপর চুরির কাজে হাত দেয় চোরের দল ৷ চুরি করতে এসে শুধু রান্না করা নয়। ঘরে আলো কম থাকায় সমস্যা হচ্ছিল। সমস্যা সমাধানে বাথরুম থেকে আলো খুলে নিয়ে এসে ঘরে লাগায় চোরের দল। আলো লাগিয়ে তারপর ঘরে অবাধে লুটপাট চালায় তারা ৷ ঘরের আলমারি, শো-কেস, সুটকেস, ট্রাঙ্ক কোনওকিছুই বাদ দেয়নি। সব তছনছ!

আরও পড়ুন, সিদ্ধি খেয়ে ঘুমিয়ে পড়েছিল মন্দির দালানে! ভোর রাতে পুঁটুলি সমেত ধরা পড়ল চোর

শেফালি সর্দার জানান, মেয়ের ডেলিভারির কথা মাথায় রেখে ৪৫ হাজার টাকা বাড়িতে রেখেছিলেন তিনি ৷ যদি কোনও দরকারে লাগে। জামাই-ই তাঁকে একটু টাকা যোগাড় করে রাখতে অনুরোধ করেছিলেন ৷ সেই টাকাও নিয়ে চম্পট দিয়েছে চোরের দল। তবে রেখে গিয়েছে পুরনো পয়সা, যেগুলো এখন অচল ৷ মেয়ের বাড়ি থেকে ঘরে ফিরে এদৃশ্য দেখে মাথায় হাত শেফালী দেবীর ৷