TMC: 'ক্যাকা করতে এলে চকোলেট বোমা ফেলবেন', নিদান তৃণমূল নেতার

পশ্চিম মেদিনীপুরের কোশিয়ারি দিলীপ ঘোষের পালটা সভা করল তৃণমূল। সেই সভায় বিতর্কিত মন্তব্য করলেন খোদ দলের  জেলা কো-অর্ডিনেটর অজিত মাইতি।

Updated By: Nov 20, 2022, 09:19 PM IST
TMC: 'ক্যাকা করতে এলে চকোলেট বোমা ফেলবেন', নিদান তৃণমূল নেতার

ই গোপী: পঞ্চায়েত ভোটের আগে রাজনীতির পারদ চড়ছে! বিরোধীদের এবার 'বোমা মারা'র নিদান দিলেন অজিত মাইতি। পশ্চিম মেদিনীপুরে তৃণমূলের জেলা কো-অর্ডিনেটর তিনি। প্রকাশ্য জনসভায় বললেন,  'ক্যাকা করতে এলে চকোলেট বোমা ফেলবেন। সব ধামাকা উড়ে যাবে'। 

পাঁচ বছর পার। রাজ্যের পঞ্চায়েতগুলির মেয়াদ শেষের পথে। মার্চ-এপ্রিলেই কি ভোট? ২২ জেলায় পঞ্চায়েতে আসন পুনর্বিন্যাসের তালিকা প্রকাশ করেছে নির্বাচন কমিশন। সর্বদল বৈঠকের পর, এখন খসড়া ভোটার তালিকা সংশোধনের কাজ চলছে। চলবে ৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত। চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ করা হবে ৫ জানুয়ারি। সেই তালিকা দিয়েই পঞ্চায়েত ভোট হবে।

এদিন পশ্চিম মেদিনীপুরের কেশিয়ারিতে সভা করে তৃণমূল। সেই সভায় দলের পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা কো-অর্ডিনেটর অজিত মাইতি বলেন, 'এবার ওরা ক্যাকা ভোটে একটু লড়ার চেষ্টা করছে। বলছে ডিসেম্বরে ধামাকা দেব। ধামাকা মানে ব্লাস্ট। খুব বড় ধামাকা দেব, বলছে সবাই। পয়সা আছে তো বিজেপি পার্টির, তাই বড় ব্লাস্ট করাতে পারে'। এরপরই হুঁশিয়ারি, 'আপনাদের সামনে যদি ক্যাকা আসে, বুড়িমার চকোলেট আছে, দু'চারটে চকোলেট বোমা ফেলবেন। সব ধামাকা উড়ে যাবে'! 

আরও পড়ুন: Separate Rarh Bengal: পঞ্চায়েত ভোটের আগে ফের পৃথক রাঢ়বঙ্গের দাবি, ওন্দায় সরব বিজেপি বিধায়ক

এর আগে, কোশিয়াড়ির নছিপুরে জনসভা করেছিলেন বিজেপি সাংসদ দিলীপ ঘোষ। একই জায়গায় এবার পালটা সভা করল তৃণমূল। বিজেপির  সোনালি মুর্মু বলেন, 'সরকারের কাজ আইনশৃঙ্খলা রক্ষা করা। শাসকদলের কোনও নেতার বক্তব্য সমাজ বিরোধীদের মতো হওয়া উচিত নয়'। সঙ্গে কটাক্ষ, 'বিজেপি যেখানে রাজনৈতিক কর্মসূচি নিচ্ছে, ভয় পেয়ে পালটা সভা করছে গণতন্ত্র হত্যাকারী তৃণমূল। ২৩ সালের নির্বাচনে কে কাকে বোমা মারবে, তা জবাব পাওয়া যাবে'।

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)