হিংসার প্রতিবাদে Mamata-র শপথের দিন দেশজুড়ে ধরনায় BJP; অন্তর্কলহ, দাবি TMC-র

হিংসার ঘটনায় পশ্চিমবঙ্গ সরকারের কাছে রিপোর্ট চেয়ে পাঠিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। 

Updated By: May 4, 2021, 12:15 AM IST
হিংসার প্রতিবাদে Mamata-র শপথের দিন দেশজুড়ে ধরনায় BJP; অন্তর্কলহ, দাবি TMC-র

নিজস্ব প্রতিবেদন: বুধবার শপথ নিতে চলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। ওই দিনই দেশজুড়ে ধরনায় বসতে চলেছে বিজেপি (BJP)। গেরুয়া শিবিরের অভিযোগ, ভোটের ফলপ্রকাশের পর থেকে কর্মীদের উপরে হামলা চালাচ্ছে তৃণমূল। ৬ জন কর্মীকে খুন করা হয়েছে বলেও অভিযোগ বিজেপির। কর্মীদের পাশে দাঁড়াতে রাজ্যে আসছেন সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা (JP Nadda)। রিপোর্ট তলব করেছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক।  

ভোটের ফলপ্রকাশের পর রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে কর্মী-সমর্থকদের উপরে হামলা হচ্ছে বলে অভিযোগ করছেন বিজেপি নেতারা। ভাঙচুর করা হয়েছে পার্টি অফিসও। তৃণমূলের হামলায় ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে বলেও দাবি বিজেপির। বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারীর টুইট,''নন্দীগ্রামের #কেন্দামাড়ি গ্রামে BJP4Bengal বিজেপি মহিলা কর্মীদের ওপর বর্বরোচিত হামলা চালায়  তৃণমূল দুষ্কৃতীরা। মহিলাদের সুরক্ষা নিশ্চিত করার বদলে তাদের উপর এভাবে নৃশংস অত্যাচার চালাচ্ছে তৃণমূল। পশ্চিমবঙ্গের #আসল_পরিবর্তন না করে এটাই কি সাধারণ মানুষের পাওনা?'' (বানান ও বাক্যগঠন অসম্পাদিত)

বিজেপি প্রার্থী স্বপন দাশগুপ্তর অভিযোগ,''বীরভূমের নানুরে উদ্বেগজনক পরিস্থিতি। কয়েক হাজার হিন্দু পরিবার প্রাণ বাঁচাতে মাঠে আশ্রয় নিয়েছেন। মহিলাদের শ্লীলতাহানির খবরও এসেছে। অমিত শাহ দয়া করে ওই এলাকায় নিরাপত্তার ব্যবস্থা করুন।''

বুধবার তৃতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথগ্রহণ করতে চলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ওই দিনই বাংলায় হিংসার প্রতিবাদে গোটা দেশে কোভিড বিধি মেনে ধরনা কর্মসূচি নিয়েছে বিজেপি। কর্মীদের পাশে দাঁড়াতে রাজ্যে আসছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা।

 

হিংসার ঘটনা বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের পরিণাম বলে দাবি করেছেন তৃণমূল জাতীয় মুখপাত্র ডেরেক ও'ব্রায়েন। তাঁর বক্তব্য,''ফলপ্রকাশের পর ট্রোলারদের ছুটি দিতে পারত বিজেপির আইটি সেল। প্রতিটি ঘটনাই দলের অন্তর্কলহ। বাংলায় বিজেপির তিনটি দল রয়েছে। পরস্পরকে তারা ঘৃণা করে। গত ৪ মাস ধরে মো-শা এখানে এসে ঘৃণা ছড়িয়েছে। শান্তি ও সম্প্রীতি চায় বাংলা। বিভাজন চায় বিজেপি।''      

 

হিংসা ও ভাঙচুরের ঘটনায় কলকাতা পুলিসের কমিশনার  ও পশ্চিমবঙ্গ পুলিসের ডিজির কাছে রিপোর্ট চেয়েছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। তবে রিপোর্ট না আসায় হতাশাও প্রকট করেছেন তিনি। 

 

ভোটপরবর্তী হিংসার ঘটনায় পশ্চিমবঙ্গ সরকারের কাছে রিপোর্ট চেয়ে পাঠিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। 

আরও পড়ুন- এই প্রথম দেখলাম প্রধানমন্ত্রী ফোন করলেন না, হয়তো ব্যস্ত, সেন্টিমেন্টে নিইনি: Mamata