Balurghat: দশমীতে বাড়ির সামনে দেদার পুড়ছে আতসবাজি! প্রতিবাদ করে 'আক্রান্ত' মহিলা আইনজীবী

থানায় অভিযোগ দায়ের।

Updated By: Oct 17, 2021, 06:31 PM IST
Balurghat: দশমীতে বাড়ির সামনে দেদার পুড়ছে আতসবাজি! প্রতিবাদ করে 'আক্রান্ত' মহিলা আইনজীবী

নিজস্ব প্রতিবেদন: দশমীর রাতে বাড়ির সামনে পোড়ানো হচ্ছিল আতসবাজি। প্রতিবাদ করেছিলেন, রেয়াত করা হল না মহিলা আইনজীবী, এমনকী তাঁর পরিবারের সদস্যদেরও। ৮ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে থানায়। দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাটের ঘটনা।

স্থানীয় সূত্রে খবর, বালুরঘাট শহরের উত্তর চকভবনী এলাকায় থাকেন ওই মহিলা আইনজীবী। জেলা আদালতে প্র্যাকটিস করেন তিনি। দশমীর রাতে বাড়ির সামনে স্থানীয় ক্লাবের সদস্যরা আতসবাজি পোড়াচ্ছিলেন বলে অভিযোগ। ওই মহিলা আইনজীবীর দাবি, বেশ কয়েকবার আপত্তি জানিয়েও কোনও লাভ হয়নি।  রাতে যখন ফের বাজি পোড়ানো শুরু হয়, তখন বাড়ির বাইরে বেরিয়ে প্রতিবাদ করেন তাঁর বাবা। রীতিমতো চড়াও হয়ে তাঁকে ক্লাবের সদস্য়রা মারধর করেন। এমনকী, বাবাকে বাঁচাতে গিয়ে আক্রান্ত হন ওই মহিলা আইনজীবী নিজেও। গুরুতর জখম অবস্থায় বালুরঘাট সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন বাবা ও মা। গতকাল, অর্থাৎ শনিবার রাতে হাসপাতাল থেকে পাওয়ার পর ৮ জনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি। ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিস।

আরও পড়ুন: Baruipur: সেলফি মোহ! ডেকে আনল যুবকের মর্মান্তিক পরিণতি

এদিকে সপ্তমীর দিনে উত্তর ২৪ পরগনা বারাসতে বাজির পোড়ানো দেখতে গিয়ে প্রাণ গিয়েছে এক শিশুর। পরিবারের লোকেদের দাবি, বাড়ির সামনে চকোলেট বোমা ফাটাচ্ছিল বেশ কয়েকজন। শব্দ পেয়ে বাইরে আসে সে। এর কিছুক্ষণ পরেই ঘটে দুর্ঘটনা। কীভাবে? প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, টিনের কৌটোতে রেখে চকোলেট বোমা ফাটানো হচ্ছিল। বিস্ফোরণ পর সেই কৌটোর একটি টুকরো ছিটকে গিয়ে গলায় লাগে বছর পাঁচেক শিশুর। গলা থেকে গলগল করে রক্ত বেরোচ্ছিল। রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে, শেষরক্ষা হয়নি।