close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

FaceApp-এর সাহায্যে ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্য হাতাচ্ছে রুশ সংস্থা!

এমনটাই দাবি মার্কিন বিশেষজ্ঞদের...

Sudip Dey Updated: Jul 18, 2019, 12:18 PM IST
FaceApp-এর সাহায্যে ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্য হাতাচ্ছে রুশ সংস্থা!
—প্রতীকী ছবি।

নিজস্ব প্রতিবেদন: FaceApp-এর জনপ্রিয়তা এখন তুঙ্গে বিশ্বজুড়ে। অ্যাপ ব্যবহার করে নিজেদের বয়স্ক রূপ যাচাই করতে ব্যস্ত সেলেব্রেটি থেকে আমজনতা। কিন্তু এই অ্যাপের মাধ্যমেই আপনার ব্যক্তিগত তথ্য বিকিয়ে দিচ্ছেন না তো? প্রশ্ন সাইবার বিশেষজ্ঞদের।

২০১৭-তে প্রথম প্রকাশ্যে আসা FaceApp শুরু থেকেই বেশ জনপ্রিয়। তবে, সম্প্রতি সেলিব্রেটিরা এই অ্যাপ ব্যবহার করা শুরু করায় এই জনপ্রিয়তা তুঙ্গে ওঠে। গুগল প্লে স্টোরে ফোটো এডিটিং অ্যাপ-এর সেকশানে প্রথম স্থানে এই অ্যাপ। কিন্তু এই অ্যাপের শর্তাবলীকে গ্রাহ্য করার মাধ্যমেই ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্য চলে যাচ্ছে অ্যাপ প্রস্তুকারীদের হাতে। বুধবার মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই-কে দেওয়া চিঠিতে এই আশঙ্কা প্রকাশ করেন সিনেট সংখ্যালঘু নেতা চাক শুমাখার। তিনি লেখেন, "রুশ অ্যাপটি মার্কিন ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্যাবলী কোথাও ফাঁস করছে কিনা তাই নিয়ে প্রশ্ন থেকে যায়। রুশ সরকারকে এই তথ্যাবলী দেওয়া হলেও সেক্ষেত্রে আর কিছুই করার থাকবে না।"

মার্কিন আইনজীবি এলিজাবেথ পটস্ ওয়েইনস্টেইনও এই বিষয়ে টুইট করে তাঁর উদ্বেগ প্রকাশ করেন। অ্যাপের শর্তাবলীর একটি স্ক্রিনশট পোস্ট করেন তিনি। সেখানে তিনি দেখান, এই অ্যাপ ব্যবহার করার সময়ে ব্যবহারকারীরা তাদের ফোটো, নাম এবং পছন্দাবলীর মতো তথ্য তুলে দিচ্ছেন এই রুশ সংস্থার হাতে।

আরও পড়ুন: বরুণ থেকে অর্জুন, বয়স বাড়াচ্ছেন সকলেই, জেনে নিন কেন

এ বিষয়ে গুগলের প্রাক্তন মার্কেটিং ম্যানেজার এরিয়েল হোস্টাটও সহমত পোষণ করেছেন। হোস্টাট জানান, এই ধরনের অ্যাপ নিয়ে তিনি বার বার ব্যবহারকারীদের সচেতন করেছেন। তিনি বলেন, "এই তথ্য কোনও ভাবে হ্যাকারদের হাতে গেলে তার ফল হতে পারে মারাত্বক। ব্যক্তিগত তথ্য থেকে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট, সব কিছুই অ্যাকসেস করা যাবে এ ভাবে।" এ ভাবে গোটা পৃথিবীর প্রচুর মানুষের ব্যক্তিগত তথ্য পৌঁছে যাবে রুশ সরকারের হাতে, দাবি হোস্টাটের।