এবার ফেসবুকে হচ্ছে কিডন্যাপ! বাঁচবেন কীভাবে!

ফেসবুকে এখন অধিকাংশ অ্যাকাউন্টই ফেক বা নকল। আর এই ফেক অ্যাকাউন্টের সূত্র ধরেই আপনি বিপদে পড়তে পারেন। বেশিরভাগ মানুষই ফেক অ্যাকাউন্টের পাতা ফাঁদে পা দিয়ে নিজের বিপদ নিজেই ডেকে আনছেন। তাই এবার একটু সাবধান হোন। ফেসবুক ব্যবহার করছেন ঠিকই, কিন্তু সেখানে নিজের সম্পর্কে সমস্ত তথ্য দিয়ে দেবেন না। সেই তথ্য ধরেই হতে পারে আপনার চরম বিপদ। শুধু আপনারই নয়, আপনার পরিবারও বিপদের সম্মুখীন হতে চলেছে।

Updated By: Mar 25, 2016, 03:37 PM IST
এবার ফেসবুকে হচ্ছে কিডন্যাপ! বাঁচবেন কীভাবে!

ওয়েব ডেস্ক: ফেসবুকে এখন অধিকাংশ অ্যাকাউন্টই ফেক বা নকল। আর এই ফেক অ্যাকাউন্টের সূত্র ধরেই আপনি বিপদে পড়তে পারেন। বেশিরভাগ মানুষই ফেক অ্যাকাউন্টের পাতা ফাঁদে পা দিয়ে নিজের বিপদ নিজেই ডেকে আনছেন। তাই এবার একটু সাবধান হোন। ফেসবুক ব্যবহার করছেন ঠিকই, কিন্তু সেখানে নিজের সম্পর্কে সমস্ত তথ্য দিয়ে দেবেন না। সেই তথ্য ধরেই হতে পারে আপনার চরম বিপদ। শুধু আপনারই নয়, আপনার পরিবারও বিপদের সম্মুখীন হতে চলেছে।

ফেসবুকে এখন পাতা রয়েছে অপহরণেরও ফাঁদ। শুধু তাতে আপনার পা দেওয়ার অপেক্ষা। যে কোনও মুহূর্তে আপনার তথ্য ধরেই অপহরণের শিকার হয়ে যেতে পারেন আপনি বা আপনার প্রিয়জনেরা। গল্প নয়, বাস্তবে এমন ঘটনা ঘটেছে। দুটি অল্পবয়সী মেয়ে ফেসবুকে অপহরণের ছক করেছে! তারা নকল ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে সেখানে মায়েদের প্রলোভন দেখিয়ে তাঁর সন্তানকে অপহরণের পরিকল্পনা করে। পুলিস তাদের গ্রেফতারও করেছে।

প্রসঙ্গে পুলিসের সূত্র থেকে জানা গিয়েছে, ১৭ এবং ১৮ বছর বয়সের দুটি কিশোরী ফেসবুক পেজে অফার দেয় যে, বাচ্চাদের জন্য বিনামূল্যে পোশাক দেওয়া হচ্ছে। মায়েরা যেন তাঁদের যোগাযোগের ঠিকানা এবং মোবাইল নম্বর খুব তাড়াতাড়ি পাঠান। শুধু তাই নয়, ফেসবুকের অ্যাকাউন্টে তারা নিজেদের সোশ্যাল ওয়ার্কার হিসেবে পরিচয় দেয়। এরপরেই এক মহিলা তাঁর ঠিকানা এবং মোবাইল নম্বর পাঠান। ওই দুই কিশোরী যখন বাচ্চাদের পোশাক দিতে আসে তখনই তাদের আচরণ অস্বাভাবিক মনে হয় ওই মহিলার। তিনি সঙ্গে সঙ্গে পুলিসে খবর দেন। পুলিস এসে দুই কিশোরীকে গ্রেফতার করেছে।

পুলিসের পক্ষ থেকে আরও জানা গিয়েছে যে, ফেসবুকের নকল অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে ওই দুই কিশোরী প্রধাণত যে সমস্ত মহিলা নতুন মা হয়েছেন, তাঁদের টার্গেট করেছিল।