Afghanistan Crisis: তালিবান রুখতে যে কোনও মুহূর্তে ঝাঁপিয়ে পড়তে পারে তাজিক বীরেরা, ক্রমশ দুর্গম হচ্ছে পঞ্জশির

১৯৮০ সালে রাশিয়াকে এবং ১৯৯৬-২০০১ সাল-পর্বে তালিবানকে পরাস্ত করেছিল পঞ্জশির।

Updated By: Aug 25, 2021, 07:52 PM IST
 Afghanistan Crisis: তালিবান রুখতে যে কোনও মুহূর্তে ঝাঁপিয়ে পড়তে পারে তাজিক বীরেরা, ক্রমশ দুর্গম হচ্ছে পঞ্জশির

নিজস্ব প্রতিবেদন: তালিবানই সাধারণত তার প্রতিপক্ষকে শর্ত দেয়। কিন্তু এ যেন উল্টো খেলা। তালিবানকেই শর্ত দেওয়া হচ্ছে। দিচ্ছে পঞ্জশিরের সিংহহৃদয় যোদ্ধারা। তালিব যোদ্ধাদের তাঁরা পরিষ্কার জানিয়েছেন, তাঁদের অঞ্চলের মানুষের মূল্যবোধকে স্বীকার করতে হবে তালিবানকে। না হলে বড়সড় বিরোধের মুখে পড়বে তালিবান।

ভৌগোলিক এবং প্রাকৃতিক কারণে বরাবরই অনেকটা সুবিধাজনক অবস্থানে থেকেছে পঞ্জশির উপত্যকা। আর তাকে আরও বেশি অপ্রতিরোধ্য ও দুর্গম করে তুলেছে সেখানকার Popular Resistance Front। জানা গিয়েছে, Afghan National Army-ও যোগ দিয়েছে পঞ্জশিরের এই Popular Resistance Front-এর সঙ্গে। তাদের সেনা পঞ্জশির উপত্যকায় (Panjshir Valley) ঢোকার মূল রাস্তার দু'পাশে কড়া নজরদারি চালাচ্ছে। অত্যাধুনিক অস্ত্রে সজ্জিত এই যোদ্ধারা আহমেদ মাসুদ ও আমরুল্লা সালেহে'র (Ahmad Massoud and Amrullah Saleh) নেতৃত্বে যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত। রাস্তার দু'পাশে পাহাড়ের মাথায় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সজ্জিত তাঁরা। রাস্তায় টহলও দিচ্ছে বিশাল বাহিনী। পুরো পঞ্জশির যেন তালিবানের কাছে এক দুর্ভেদ্য ভূখণ্ড হয়ে উঠেছে।

আরও পড়ুন: Afghanistan Crisis: একজনও আফগান নয়! শুধু বিদেশিদের নিয়েই যেন ফেরে আমেরিকা, হুমকি তালিবানের

তালিবান পঞ্জশিরে ঢোকার চেষ্টা করেছিল আগেও। কিন্তু কড়া হামলার মুখে পড়ে পিছু হঠতে বাধ্য হয়। শোনা যাচ্ছে, এবার পুরো শক্তি নিয়ে ঝাঁপানোর চেষ্টা করতে পারে তালিবান। আর সেটা আঁচ করেই পঞ্জশিরকে আরও দুর্ভেদ্য দুর্গ করার প্রস্তুতি শুরু করেছে পঞ্জশির।

তবে ইতিমধ্যেই তালিবানের ৪০ সদস্যের এক প্রতিনিধিদল পঞ্জশিরবাসীর সঙ্গে বৈঠক করেছে বলে জানা গিয়েছে। কিন্তু সেই বৈঠক থেকে কোনও রফাসূত্র বেরিয়ে আসেনি। তালিবানকে হুমকির সুরে মাসুদবাহিনী জানিয়েছে, খোরাসানের মানুষদের মূল্যবোধকে স্বীকার করতে হবে তালিবানকে, অন্যথায় আরও বড়সড় বিরোধের মুখে পড়ার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে তাদের।

এই হুমকি দেওয়া অবশ্য পঞ্জশিরবাসীর সাজে। কেননা, মাতৃভূমির জন্য যুদ্ধের অতীত ইতিহাস আছে তাদের। সুউচ্চ পাহাড়, শীর্ণ উপত্যকা এবং পঞ্জশির নদীর ফলে এমনিতেই দুর্গম এই এলাকা। প্রাকৃতিক এই সুবিধাকে সম্বল করেই মরণপণ লড়াইয়ে ১৯৮০ সালে রাশিয়াকে এবং ১৯৯৬-২০০১ সাল-পর্বে তালিবানকে পরাস্ত করেছিল তারা।

(Zee 24 Ghanta App : দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)

আরও পড়ুন: Taliban: কাশ্মীর 'দখলে' পাকিস্তানের পাশে তালিবান? কী বলছেন ইমরানের দলের নেত্রী!