সাইকেল চালানোয় উত্সাহ দিতে ঢালাও ঘোষণা, ভারতীয় সাইকেলে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

"সাইকেল চালানোর বহু গুণ। এতে শরীর সুস্থ-ফিট থাকে পাশাপাশি পরিবেশ দূষণের কোনও ব্যাপার নেই। অন্যদিকে রাস্তায় ভিড়ভাট্টাও এড়ানো যায়। বিশ্বের সবচেয়ে বড় কিছু স্বাস্থ্য ও পরিবেশের সমস্যার উত্তর কিন্তু এই সাইকেলই," বলেন বরিস।

Updated By: Jul 30, 2020, 01:48 PM IST
সাইকেল চালানোয় উত্সাহ দিতে ঢালাও ঘোষণা, ভারতীয় সাইকেলে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী
নটিংহ্যামের রাস্তা দিয়ে যেতে দেখা গেল ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রীকে

নিজস্ব প্রতিবেদন : পশ্চিমবঙ্গে আনলকে যাতায়াতের জন্য সাইকেলের পরামর্শ দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সাইকেল লেনের পরিকল্পনা শুনে তির্যক মন্তব্য করেছেন কেউ কেউ। কিন্তু বাস্তবে পুরো বিশ্বই যে সাইকেলের দিকেই প্যাডেল করছে, তার প্রমাণ মিলল আরও একবার। মঙ্গলবার সাইকেল চালিয়ে তার উপকারিতা প্রচার শুরু করলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। তাও আবার যে সে সাইকেল নয়- 'মেড ইন ইন্ডিয়া' হিরো সাইকেল।

ম্যাঞ্চেস্টারে ডিজাইন করা এই হিরো ভাইকিং প্রো সাইকেল যে কোনও সাইকেলপ্রেমীর স্বপ্ন। হালকা ওজন, মিনিমালিস্ট ডিজাইন। সঙ্গে গিয়ার, ডিস্ক ব্রেক। মাথায় হেলমেট ও পিঠে ব্যাকপাক নিয়ে কালো রঙের সেই সাইকেল চালিয়ে নটিংহ্যামের রাস্তা দিয়ে যেতে দেখা গেল ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রীকে। 

"সাইকেল চালানোর বহু গুণ। এতে শরীর সুস্থ-ফিট থাকে পাশাপাশি পরিবেশ দূষণের কোনও ব্যাপার নেই। অন্যদিকে রাস্তায় ভিড়ভাট্টাও এড়ানো যায়। বিশ্বের সবচেয়ে বড় কিছু স্বাস্থ্য ও পরিবেশের সমস্যার উত্তর কিন্তু এই সাইকেলই," বলেন বরিস।

তবে, এই প্রথম নয়। মাঝে মাঝেই সাইকেল চালান ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী। সাইক্লিং করতে পছন্দ করেন বলেও জানিয়েছেন একাধিক বার। তবে সাইকেল চালানোর জন্যও যে উপযুক্ত রাস্তা, সাইকেল নিরাপদে রাখার জায়গা ইত্যাদি প্রয়োজন, সে কথাও বলেন বরিস। "এই বিষয়গুলি নিয়ে মানুষ নিশ্চিন্ত হলে তবেই সাইকেল নিয়ে যাতায়াতে উত্সাহিত হবেন," বলেন বরিস। এর জন্য কয়েক হাজার মাইলের নতুন সাইকেল লেনের প্রকল্পের ঘোষণা করেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী। 

শুধু তাই নয়, প্রত্যেকের শারীরিক গঠন আলাদা। তাই স্বচ্ছন্দে লম্বা রাস্তা যেতে প্রয়োজন সঠিক মাপের সাইকেল, যা কেবল সেই ব্যক্তির উচ্চতা, ওজন ও প্রয়োজন মেপে অ্যাডজাস্ট করা। অর্থাত্ প্রেসক্রিপসনের ভিত্তিতে সাইকেল বিক্রির ব্যবস্থাও করা হবে বলে জানান তিনি। পাশাপাশি যাতে সঠিক ট্রাফিক আইন মেনে সাইকেল চালানো হয়, সে বিষয়েও প্রত্যেক সাইকেল ক্রেতাকে প্রশিক্ষণ নিতে হবে বলে জানান তিনি।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী জনসাধারণকে সচেতন করতে তাঁদের বানানো সাইকেল চালাচ্ছেন তা জেনে উত্ফুল্ল হিরো মোটর কোম্পানির চেয়ারম্যান পঙ্কজ এম মুঞ্জল। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগকেও স্বাগত জানান তিনি। 
আরও পড়ুন : শুরু হয়েছে তৃতীয় পর্বের ট্রায়াল, বিশ্বকে করোনা প্রতিষেধক দেবে আমেরিকাই, ঘোষণা ট্রাম্পের