পার্থর ফোনে মাঝপথ থেকেই ফিরে গেলেন শোভন

Last Updated: Friday, November 30, 2012 - 19:13

তৃণমূলের দলীয় বৈঠক ঘিরে জোর নাটক। বিক্ষুদ্ধ শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়কে বৈঠকে ডেকেও তাঁকে ফিরে যেতে বলা হল। তৃণমূল ভবনে বৈঠক চলাকালীন শোভনদেবকে ডেকে পাঠানো হয়। কিন্তু তারপরই পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ফোন পেয়ে মাঝপথ থেকে ফিরে যান শভনদেব বাবু। দলীয় অস্বস্তি এড়াতেই কী তড়িঘড়ি এই পদক্ষেপ? উঠছে প্রশ্ন।
কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে তৃণমূল বিধায়ক শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়কে হেনস্থার প্রতিবাদে শুক্রবার বিক্ষোভ সমাবেশ করছিলেন আইএনটিটিইউসি সমর্থকেরা। সমাবেশ হয় ধর্মতলায় ভিক্টোরিয়া হাউসের সামনে। সমাবেশ থেকে আইএনটিটিইউসির অন্য গোষ্ঠীর নেতাদের বিরুদ্ধে স্লোগান দেওয়া হয়। বিক্ষোভ সমাবেশের পর মিছিলেরও কর্মসূচি ছিল। তবে সমাবেশ চলাকালীনই তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী ফোন করেন শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়কে। এরপরই মিছিলের কর্মসূচি বাতিল করা হয়। নেত্রীকে সম্মান জানাতেই মিছিল বাতিলের সিদ্ধান্ত বলে জানানো হয়েছে আইএনটিটিইউসির নেতরা।
শুক্রবারই দলে বিদ্রোহ ঠেকাতে বৈঠকে বসছেন তৃণমূল কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্ব। বৈঠকে ডাকা হয়  ক্ষুব্ধ শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়কে। আজ বিকেলে তৃণমূল কংগ্রেস ভবনে  তাঁর সঙ্গে বৈঠকে বসার কথা ছিল পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং মুকুল রায়ের। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে আইএনটিটিইউসি-র একটি গোষ্ঠীর হাতে হেনস্থার শিকার হন শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়। এরপর দলের ভিতরে সম্মান-মর্যাদার প্রশ্নে সরব হন তিনি। প্রবীণ বিধায়ক তথা সরকারের মুখ্য সচেতকের এই ক্ষোভ প্রকাশ্যে এসে পড়ায় যথেষ্ট অস্বস্তিতে পড়ে তৃণমূল কংগ্রেস। সেই অস্বস্তি ঢাকতে গতকাল শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে কথা বলেছিলেন সুব্রত মুখোপাধ্যায় এবং ফিরহাদ হাকিম।



First Published: Friday, November 30, 2012 - 19:13


comments powered by Disqus