ভারতের পরবর্তী প্রধান বিচারপতি হতে চলেছেন তীর্থ সিং ঠাকুর

ভারতের পরবর্তী প্রধান বিচারপতি হতে চলেছেন তীর্থ সিং ঠাকুর

ভারতের পরবর্তী প্রধান বিচারপতি হতে চলেছেন তীর্থ সিং ঠাকুর। ভারতের ৪৩ তম প্রধান বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ হবেন তিনি। ২০১৭ সালের ৪ জানুয়ারী পর্যন্ত এই পদে বহাল থাকবেন টিএস ঠাকুর। ইনিই হবেন প্রথম বিচারপতি যিনি নতুন আইনের মাধ্যমে নিয়োগ হবেন।

বিহারে ১২০-১৩০ টি আসন পেতে পারে এনডিএ, বলছে বুথ ফেরত সমীক্ষা বিহারে ১২০-১৩০ টি আসন পেতে পারে এনডিএ, বলছে বুথ ফেরত সমীক্ষা

এনডিটিভির নতুন এক্সিট পোলের হিসেব অনুযায়ী বিহার বিধানসভা নির্বাচনে ২৪৩ টি আসনের মধ্যে ১২০ থেকে ১৩০ টি আসন পেতে চলেছে বিজেপি জোট।

'ফেল' ইউপিএ সরকারের শিক্ষার অধিকার আইন! পাস-ফেল ফিরিয়ে আনতে চাইছে মোদী সরকার, এখনও অন্ধকারেই রাস্তা 'ফেল' ইউপিএ সরকারের শিক্ষার অধিকার আইন! পাস-ফেল ফিরিয়ে আনতে চাইছে মোদী সরকার, এখনও অন্ধকারেই রাস্তা

অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত পাস-ফেল চালু হচ্ছে আবার। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর বক্তব্যেই ইঙ্গিত স্পষ্ট। আর তারই জেরে বিতর্ক দানা বাধছে । সকলের জন্য অবৈতনিক শিক্ষা।  সকলকে শিক্ষিত করে তুলতে হবে। এই উদ্দেশ্যই ছিল ইউপিএ সরকারের শিক্ষানীতির। সে কারণে শিক্ষাকে সহজ করে তুলতে চেয়েছিলেন আইন প্রণেতারা। ক্লাস এইট পর্যন্ত পাস ফেল তুলে দিয়ে শিক্ষার প্রসারের উদ্দেশ্য নিয়েই দুহাজার দশে শিক্ষার অধিকার আইন তৈরি করে ইউপিএ সরকার।  

প্রসঙ্গ স্মার্টসিটি: কেন্দ্র-রাজ্য কাজিয়া উস্কে দিলেন বাবুল সুপ্রিয় প্রসঙ্গ স্মার্টসিটি: কেন্দ্র-রাজ্য কাজিয়া উস্কে দিলেন বাবুল সুপ্রিয়

স্মার্ট সিটিকে কেন্দ্র করে কেন্দ্র-রাজ্য কাজিয়া আরও উস্কে দিলেন কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। এবিষয়ে রাজ্যকেই কাঠগড়ায় তুলে তাঁর দাবি, স্মার্ট সিটি নিয়ে তাঁর দফতরের পাঠানো চিঠির উত্তরই দেয়নি রাজ্য। গতকালই পুর ও নগরোন্নয়নমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম অভিযোগ করেন, স্মার্ট সিটির নামে ভাঁওতা দিচ্ছে মোদী সরকার।

ধান কেনা নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বৈষম্যের অভিযোগ আনল রাজ্য ধান কেনা নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বৈষম্যের অভিযোগ আনল রাজ্য

ধান কেনা নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বৈষম্যের অভিযোগ আনল রাজ্য। ধান উত্‍পাদনে রাজ্য প্রথম। অথচ এরাজ্য থেকে সবচেয়ে কম পরিমাণে ধান সংগ্রহ করছে কেন্দ্র। ধান সংগ্রহের পরিমাণ বাড়ানোর দাবি জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিলেন মুখ্যমন্ত্রী।

 নীতিশকে 'হারাতে' বিহারে বিজেপির সঙ্গে গাঁটছড়া জিতন রাম মানঝির নীতিশকে 'হারাতে' বিহারে বিজেপির সঙ্গে গাঁটছড়া জিতন রাম মানঝির

বিহারের আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির সঙ্গে সরাসরি গাঁটছড়া বাঁধলেন সে রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জিতন রাম মানঝি। বৃহস্পতিবার হিন্দুস্তানি আওয়াম মোর্চার নেতা জিতন রাম মানঝি পাটনায় বিজেপি প্রেসিডেন্ট অমিত শাহের উপস্থিতিতে এনডিএ-এর সঙ্গে জোটের কথা ঘোষণা করেন।

স্যুটকেসের থেকে স্যুট-ব্যট অনেক বেশি গ্রহণযোগ্য: মোদী স্যুটকেসের থেকে স্যুট-ব্যট অনেক বেশি গ্রহণযোগ্য: মোদী

কেন্দ্রে প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে এবার চাঁচাছোলা প্রতি আক্রমণের পথে বেছে নিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। শনিবার মোদী বলেন, ছ'দশক ধরে এই দেশ শাসন করার পরে হঠাৎই গরীব দরদী হয়ে উঠেছে কংগ্রেস।  

প্রসঙ্গ দুর্নীতি: মুখোমুখি প্রাক্তন ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী প্রসঙ্গ দুর্নীতি: মুখোমুখি প্রাক্তন ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী

দুর্নীতি নিয়ে পারস্পরিক চাপানউতোরের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর মুখোমুখি হলেন মনমোহন সিং। গত রাতে প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন সাত নম্বর রেস কোর্স রোডে যান প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী। দুই নেতার মধ্যে আর্থিক এবং বিদেশনীতি নিয়ে কথা হয়। মোদীর আমন্ত্রণেই মনমোহন সিংয়ের এই সাক্ষাত্‍কার বলে জানিয়েছেন তাঁর সচিব জিএম পিল্লাই।

বিজেপি সরকারের আমলে দেশের উন্নয়ন আরও দুর্বল হচ্ছে, তোপ দাগলেন মনমোহন সিং বিজেপি সরকারের আমলে দেশের উন্নয়ন আরও দুর্বল হচ্ছে, তোপ দাগলেন মনমোহন সিং

প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন পদের অপব্যবহার করেননি তিনি। বিজেপির হাতে কোনও ইস্যু নেই, তাই UPA সরকারের আমলের দুর্নীতি নিয়ে সোচ্চার বিরোধীরা। আজ এভাবেই বিজেপিকে পাল্টা নিশানা করলেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং।

বাবুল ইস্যুতে মুখ বাঁচাতে ময়দানে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব বাবুল ইস্যুতে মুখ বাঁচাতে ময়দানে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব

বাবুল সুপ্রিয় ইস্যুতে মুখ বাঁচাতে আসরে নামতে হল বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে। কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক নির্মলা সীতারমণকে পাঠিয়ে বাবুল ইস্যুতে ইতি টানারও চেষ্টা করলেন অমিত শাহ-রাজনাথ সিংরা। রাজ্যের নেতাদের কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষকের পরামর্শ, আপনারা আপনাদের মত কাজ করুন। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী আর বিজেপি কর্মী এক নন। শুধু রূপা গাঙ্গুলিই নয়। বাবুল সুপ্রিয়'র বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন বিজেপি নেতা জয় বন্দ্যোপাধ্যায়ও।

নয়া বন্ধুত্বের গন্ধে ম-ম আসানসোলের মঞ্চে, সুর মিলিয়ে একতার বার্তা নয়া বন্ধুত্বের গন্ধে ম-ম আসানসোলের মঞ্চে, সুর মিলিয়ে একতার বার্তা

নব বন্ধুত্বের গন্ধে আক্ষরিক অর্থেই ম-ম করল আসানসোলের মঞ্চ। এক  ম-এ মোদী। আর এক ম-এ মমতা। রাজনৈতিক শত্রুতার পর্ব পেরিয়ে, একসুরে বাজলেন দুজনেই। দুজনেরই বার্তা-- রাজনীতির ওপরে উঠে জোর দিতে হবে কেন্দ্র-রাজ্য সহযোগিতায়।

তৃণমূলের ভোটে রাজ্যসভায় খনি বিল পাশ করল বিজেপি তৃণমূলের ভোটে রাজ্যসভায় খনি বিল পাশ করল বিজেপি

রাজ্যসভায় খনি ও খনিজ সম্পদ বিল পাশ করিয়ে নিল মোদী সরকার। বাজেট অধিবেশনের প্রথমার্ধের শেষ দিনে পাশ হল সংশোধিত খনি বিল। প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেস এবং বাম দলগুলির লাগাতার বিরোধিতা সত্ত্বেও সংসদের উচ্চকক্ষে খনি বিলটি পাশ করানো গেল মূলত তৃণমূলের জন্যই। ধ্বনিভোটে পাশ হওয়া বিলটির পক্ষে ভোট দেয় তৃণমূল। পক্ষে ভোট দেয় এআইডিএমকে, বিএসপি, এসপি এবং বিজেডিও। তবে বিলের বিরোধিতায় আজ ওয়াকআউট করে জেডিইউ। এবার লোকসভায় পাঠানো হবে বিলটি। রাজ্যসভায় বিলটি পাশের আগেই কক্ষ থেকে বেরিয়ে যায় জনতা দলের ১২ জন সাংসদ। রাজ্য সভায় এনডিএ জোটের সাংসদ সংখ্যা ৫৭ জন।  কংগ্রেসের রয়েছে ৬৯ জন। এতদ সত্ত্বেও সরকার বিলের পক্ষে মোট ১১২ জনের সমর্থন অর্জন করেছে, যেখানে বিলের বিরোধীতায় মাত্র ৬৮ টি ভোট পরে।    

বাধ্যতামূলক নয় আধার কার্ড, জানিয়ে দিল শীর্ষ আদালত বাধ্যতামূলক নয় আধার কার্ড, জানিয়ে দিল শীর্ষ আদালত

বাধ্যতামূলক নয় আধার কার্ড। সোমবার জানিয়ে দিল সুপ্রিমকোর্ট। কেন্দ্র ও রাজ্যসরকার গুলিকে সতর্ক করে শীর্ষ আদালত জানিয়েছে কোনও ব্যক্তির গণতান্ত্রিক অধিকার হরণ করে জনসাধরণের কল্যাণের নামে কাউকেই আধার কার্ড করতে বাধ্য করা যাবে না। প্রশাসন যদি কাউকে এই কাজে বাধ্য করলে তার বিরুদ্ধে আদালত ব্যবস্থা নেবে বলেও জানানো হয়েছে।

রাহুল গান্ধীর উপর নজরদারির অভিযোগ ওড়াল কেন্দ্র রাহুল গান্ধীর উপর নজরদারির অভিযোগ ওড়াল কেন্দ্র

রাহুল গান্ধীর ওপর নজরদারির অভিযোগ উড়িয়ে দিল কেন্দ্রীয় সরকার। আজ রাজ্যসভায় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি বলেন, সিকিওরিটি প্রোফাইলিংয়ের অঙ্গ হিসাবেই তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছিল। এর সঙ্গে চরবৃত্তির আদৌ কোনও সম্পর্ক নেই। রাহুল গান্ধীর প্রসঙ্গ টেনে আজ বিরোধীদের ওপর  নজরদারির বিষয়টি রাজ্যসভায় তোলেন কংগ্রেস ও সমাজবাদী পার্টির সাংসদরা।

রেল বাজেট ২০১৫-এর সেরা ১৫ রেল বাজেট ২০১৫-এর সেরা ১৫

১) বাড়ছে না যাত্রী ভাড়া।

২) ৪ মাস আগে থেকেই কাটা যাবে ট্রেনের টিকিট।

৩)অনলাইনকে বুক করা যাবে বিছানাপত্তর।