এইজন্যই টেস্ট ক্রিকেটে ব্যাটসম্যানরা টি২০ ঢংয়ে ব্যাট চালাচ্ছেন

Updated By: Oct 21, 2016, 05:17 PM IST
এইজন্যই টেস্ট ক্রিকেটে ব্যাটসম্যানরা টি২০ ঢংয়ে ব্যাট চালাচ্ছেন

স্বরূপ দত্ত

ক্রিকেট এখন এতটাই জনপ্রিয় আর এতটাই লাভজনক হয়ে উঠেছে যে, রোজ রোজ খেলা আয়োজন করতে পারলেই যেন বাঁচে ক্রিকেট বোর্ডগুলো। তার সবথেকে বড় উদাহরণটা বোধহয় ভারত এবং অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট বোর্ডই দিল। এমনটা তো মনে পড়ছে না কখনও, যেমনটা এবার হতে চলেছে। ভাবছেন কী হতে চলেছে? ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে বর্ডার-গাভাসকর সিরিজ খেলতে ভারতে আসছে অস্ট্রেলিয়া। তাঁর সূচি আজই ঘোষণা করেছে বিসিসিআই। সেই সূচি এরকম -

প্রথম টেস্ট - ২৩ থেকে ২৭ ফেব্রুয়ারি

দ্বিতীয় টেস্ট - ৪ থেকে ৮ মার্চ

তৃতীয় টেস্ট - ১৬ থেকে ২০ মার্চ

চতুর্থ টেস্ট - ২৫ থেকে ২৯ মার্চ

এই পর্যন্ত সব ঠিকই ছিল। আরও ভালো ব্যাপার এই চারটে টেস্টের তিনটে টেস্টই হবে এমন জায়গায়, যেখানে এর আগে একদিনের ক্রিকেট বা টি২০ ম্যাচ হয়েছে। কিন্তু কখনওই টেস্ট হয়নি। কিন্তু এরপরই আপনি যখন ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার ওয়েবসাইটে ঢুকবেন, তখন চোখ তো একটু ছানাবড়া হবেই। অথবা নতুন করে ভাবতে হবে। কারণ, ২০১৭ শুরুতে আবার শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট খেলতে যাচ্ছে অস্ট্রেলিয়ায়। সেখানে তিনটে টি২০ ম্যাচ খেলবে শ্রীলঙ্কা। আর ওই তিনটে টি২০ ম্যাচের সূচি এরকম -

প্রথম টি২০ - ১৭ ফেব্রুয়ারি

দ্বিতীয় টি২০ - ১৯ ফেব্রুয়ারি

তৃতীয় টি২০ - ২২ ফেব্রুয়ারি

আর এটা দেখেই ভাবনাটা মাথায় এলো! মানে, অস্ট্রেলিয়া ২২ ফেব্রুয়ারি অ্যাডিলেডে খেলবে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে টি২০ ম্যাচ। আর তার মাত্র ২৪ ঘণ্টার মধ্যে পুনেতে ভারতের বিরুদ্ধে টেস্ট খেলতে নামবে! টেস্টই তো আসল ক্রিকেট। শুধুমাত্র টেস্ট সিরিজে ভাল ফল করার জন্য কত দল কতদিন আগে থাকতে অন্য দেশে চলে যায় বা চলে আসে। আর কালে কালে ব্যাপারটা দাঁড়ালো এরকম যে, এখন ২৪ ঘণ্টার মধ্যে অন্য এক মহাদেশ থেকে আর এক মহাদেশে এসে টেস্ট খেলতে নেমে যাচ্ছে দলগুলো! অবাক তো একটু হবই। অবশ্য দুটো তিনটে বিষয় মনে হচ্ছে সূচিটা দেখার পর। এখন তো অনেকক্ষেত্রেই টি২০ দল, টেস্ট দল, একদিনের দলগুলো আলাদা আলাদা হয়। তাই হতে পারে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে যাঁরা সেদিন মাঠে নামবেন, তাঁরা হয়তো অস্ট্রেলিয়া টেস্ট দলে খেলবেন না। কিন্তু এরকম তো সাধারণত হয় না যে, কোনও টি২০ দলের ১১ জনই আলাদা ক্রিকেটার, যাঁরা টেস্ট খেলেন না! পাঁচ, ছয়, সাতজন আলাদা ক্রিকেটার হতে পারে। তা বলে ১১ জনই একেবারে আলাদা! ভাবতে একটু কেমনই লাগছে। আপাতত তাই অপেক্ষা করা ছাড়া উপায় কী, আসল জিনিসটা দেখার জন্য।

কিন্তু যদি সত্যিই এমন হয় যে, অস্ট্রেলিয়ার দু-চারজন ক্রিকেটারও ২২ ফেব্রুয়ারি অ্যাডিলেডে খেলে ২৩ তারিখ পুনেতে আবার টেস্ট খেলতে নামেন, বিষয়টা একটু ব্যতিক্রমীই হবে বইকি। টেস্ট ক্রিকেট ব্যাট করতে নেমে এরপর আর ব্যাটসম্যানরা টি২০ ক্রিকেটের মতো ব্যাট চালালে, দোষ দিয়ে লাভ কী! অবশ্য এমনও হতে পারে, সূচিচে পরে কিছু পরিবর্তন হল। তাহলে ভালোই হয়। নাহলে এটা মোটেই ভালো নিদর্শন নয় খেলাটার জন্য।

আরও পড়ুন আজই জন্মদিন আলফ্রেড নোবেলের, যাঁর জন্যই আজকের নোবেল পুরস্কার!