'তোমাকে আসতে হবে না, অন্য কাউকে নেওয়া হয়েছে', এভাবে এক ফোনেই বাদ গিয়েছিল অক্ষয়ের নাম

মাত্র এক রাতের মধ্যেই বদলে গিয়েছিল ছবির নায়কের নাম।

Edited By: রণিতা গোস্বামী | Updated By: Jul 4, 2020, 06:48 PM IST
'তোমাকে আসতে হবে না, অন্য কাউকে নেওয়া হয়েছে', এভাবে এক ফোনেই বাদ গিয়েছিল অক্ষয়ের নাম

নিজস্ব প্রতিবেদন : ১৯৯১ সালে মুক্তি পেয়েছিল, অজয় দেবগণ ও মধু, অমরেশ পুরী অভিনীত ছবি 'ফুল অউর কাঁটে'। ছবিটি বক্স অফিসে সুপার হিট হয়। অথচ, অনেকেই হয়ত জানেন না, ছবিটিতে অজয় নয়, এই ছবির হাত ধরে নায়ক হিসাবে ডেবিউ করার কথা ছিল অক্ষয়ের। মাত্র এক রাতের মধ্যেই বদলে গিয়েছিল ছবির নায়কের নাম।

Mid-Day-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে একথা নিজেই একবার খোলসা করেছিলেন আক্কি। তাঁর কথায়, ছবির প্রত্যেকটি গান সঙ্গীতশিল্পীদের সঙ্গে বসে বসে শুনেও ফেলেছিলেন আক্কি। ছবির জন্য একটি ফটোশ্যুট করেছিলেন। এমনকি রাতে শ্যুটিংয়ের জন্য প্রয়োজনীয় বরফের বক্সও তৈরি করে রেখেছিলেন। একপ্রকার পরদিন সকালে শ্যুটিং শুরুর জন্য পুরোপুরি তৈরি ছিলেন তিনি। কিন্তু রাতে ফোন করে বলা হয় ''আপনাকে আসতে হবে না। অন্য কাউকে নেওয়া হয়েছে।'' ১৯৯১ সালে কেরিয়ারের শুরু যে ছবির মাধ্যমে হওয়ার কথা ছিল সেই ছবিটিই হাতছাড়া হয়েগিয়েছিল অক্ষয়ের। তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় উঠে আসা ভিডিয়োতে একথা অবশ্য হাসতে হাসতে মজা করেই বলতে দেখা যায় আক্কিকে।

আরও পড়ুন-স্বামী শালভের সঙ্গে নাইট ক্লাবে জমিয়ে নাচ অভিনেত্রী কাম্য পাঞ্জাবির, প্রকাশ্যে ভিডিয়ো

সেসময় অজয় দেবগণ ছিল স্টান্ট মাস্টার বীরু দেবগণের ছেলে। আর সেনাপ্রধানের ছেলে অক্ষয় ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে ছিলেন একেবারেই বহিরাগত। তাই খুব স্বাভাবিকভাবেই বাদ পড়েছিল অক্ষয়ের নাম। তবে তিনি ভেঙে পড়েননি। পরবর্তীকালে 'সুগন্ধ' বলে একটি ছবিতে নায়ক হিসাবে আত্মপ্রকাশ করেন আক্কি। ওই ছবিটিও ১৯৯১ সালেই মুক্তি পেয়েছিল। ১৯৯২ সালে অক্ষয় অভিনীত 'খিলাড়ি' ছবিটি বক্স অফিসে সুপারহিট হয়।

আরও পড়ুন-মানালিতে পাহাড়ের কোলে পরিবারের সকলকে নিয়ে পিকনিকে যে সাধারণ পাহাড়ি কন্যা হয়ে উঠলেন কঙ্গনা

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর বি-টাউনে নতুন করে উঠে এসেছে 'নেপোটিজম' বা স্বজনপোষণ বিতর্ক। তবে স্বজনপোষণের ঘটনা বলিউডে নতুন নয়, বহু যুগ ধরেই চলে আসছে। আর 'ফুল অউর কাঁটে' ছবি থেকে অক্ষয়ের বাদ পড়ার ঘটনা তারই এক উদাহরণ।