পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে পাকিস্তানি আতিফের গলায় ভারতীয় গান ডেকে আনল 'সর্বনাশ'!

 শত সমালোচনার মুখে পড়েও এ বিষয়ে টু শব্দ করেননি আতিফ ইসলাম

Updated: Aug 10, 2018, 01:04 PM IST
পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে পাকিস্তানি আতিফের গলায় ভারতীয় গান ডেকে আনল 'সর্বনাশ'!

নিজস্ব প্রতিবেদন : নিউ ইয়র্কে পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবসের প্যারেডে ভারতীয় গান গাইলেন আতিফ ইসলাম। আর আর জেরেই শুরু হয়েছে হুলুস্থুল।

রিপোর্টে প্রকাশ, পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে চলতি মাসের গোড়ায় নিউ ইয়র্কে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সেই অনুষ্ঠানেই ভারতীয় গান গাইতে শোনা যাচ্ছে বলিউডের পাকিস্তানি গায়ককে। এরপর থেকেই আতিফকে ঘিরে শুরু হয় কড়া সমালোচনা। একজন পাকিস্তানি হয়ে সে দেশের স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে আতিফ কীভাবে ভারতীয় গান গাইলেন, তা নিয়ে উঠতে শুরু করে প্রশ্ন। এমনকী আতিফের দেশপ্রেম নিয়েও প্রশ্ন তোলা হয় পাক নেট জনতা এবং সে দেশের সংবাদমাধ্যমের তরফে।

আরও পড়ুন : কোনও ঘোরাঘুরি নয়, মা-কে নিয়ে দেশ ছাড়লেন সলমন খান

নিউ ইয়র্কে ভারতীয় গান গাওয়ার পরই আতিফ ইসলামের উপর কোনও সম্মান আর নেই বলে তাঁকে আক্রমণ করা হয়। ‘আপনি মন ভেঙে দিয়েছেন’ বলেও পাকিস্তানের কেউ কেউ দুঃখপ্রকাশ করেন। আবার কেউ কেউ আতিফ ইসলামকে বয়কট করারও ডাক দিয়েছেন। সবকিছু মিলিয়ে, নিউ ইয়র্কে পাকিস্তানি স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে আতিফ ইসলামের ভারতীয় গান নিয়ে ইতিমধ্যেই জোর তরজা শুরু হয়েছে পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যমেও।

যদিও পাকিস্তানি গায়ক সাফাত আমানত আলি এগিয়ে এসেছেন আতিফ ইসলামের সমর্থনে। তিনি বলেন, আতিফ কোনও ভুল করেননি। সঙ্গীত কখনও ভারতীয় বা পাকিস্তানি হতে পারে না। সঙ্গীতের কোনও সীমারেখা নেই।

আরও পড়ুন : শেষে গোপন কথা প্রকাশ্যে আনলেন নিক, প্রিয়াঙ্কা কি মেনে নেবেন?

চিত্র সমালোচচক ওমির আলভি বলেন, বলিউডের যে কোনও সিনেমা বা নাটক বা সিরিয়াল পাকিস্তানে প্রকাশ্যে দেখানো হয়। তাই সঙ্গীতের ক্ষেত্রে এই ধরনের কোনও সীমারেখা থাকতে পারে বলেও তিনি মনে করেন না বলে জানিয়েছেন আলভি।

শুধু তাই নয় আলভি আরও প্রশ্ন তোলেন, বলিউডি সিনেমা দেখতে কি পাকিস্তানিরা সিনেমা হলে যান না? ভারতীয় মেগা সিরিয়াল কি পাকিস্তানের টেলিভিশন চ্যানেলগুলিতে চলে না? তাহলে সঙ্গীত নিয়ে এত মাতামাতি কেন বলেও প্রশ্ন তোলেন পাকিস্তানের এই চিত্র সমালোচক। যদিও, শত সমালোচনার মুখে পড়েও এ বিষয়ে টু শব্দ করেননি আতিফ ইসলাম।

আরও পড়ুন : রণবীরকে ভুলে এবার সলমনের সঙ্গে জবর 'প্রেম' দীপিকার?

প্রসঙ্গত, ২০০৯ সালে ‘আজব প্রেম কি গজব কাহিনি’ দিয়ে বলিউডে ডেবিউ করেন আতিফ ইসলাম। রণবীর কাপুরের লিপে ‘তেরা হোনে লাগা হু’ দিয়েই বলিউডে নিজের জায়গা করে নেন আতিফ। তারপর থেকে বলিউডে কেরিয়ার নিয়ে আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি আতিফ ইসলামকে। প্রসঙ্গত, ‘রেস থ্রি’-তো আতিফ ইসলামের গান নিয়ে দেশ জুড়ে সমালোচনার ঝড় বয়ে যায়। ভারতীয় গায়ক থাকা সত্ত্বেও কেন আতিফ ইসলামকে দিয়ে ‘রেস থ্রি’-র গান গাওয়ানো হচ্ছে তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়-ও।