ভালবাসা ও বিপ্লব বুকে, কাগজ দেখাবো না, CAA-র প্রতিবাদে স্বস্তিকা, সব্যসাচীরা

'হম কাগজ নেহি দিখায়েঙ্গে'-  গীতিকার, কবি ও স্ট্যান্ড আপ কমেডিয়ান বরুণ গ্রোভার কবিতার মাধ্যমে প্রতিবাদ দেখিয়েছিলেন। 

Updated By: Jan 13, 2020, 05:38 PM IST
ভালবাসা ও বিপ্লব বুকে, কাগজ দেখাবো না, CAA-র প্রতিবাদে স্বস্তিকা, সব্যসাচীরা

নিজস্ব প্রতিবেদন: 'হম কাগজ নেহি দিখায়েঙ্গে'- নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন, নাগরিকপঞ্জি ও জাতীয় নাগরিক পঞ্জিকরণের বিরোধিতায় গর্জে উঠেছিল বরুণ গ্রোভারের কলম। তার বাংলা অনুবাদে সুর মেলালেন টলিউডের শিল্পীরা। সকলের মুখে এক অঙ্গীকার,'আমরা কাগজ দেখাবো না।'   

'হম কাগজ নেহি দিখায়েঙ্গে'-  গীতিকার, কবি ও স্ট্যান্ড আপ কমেডিয়ান বরুণ গ্রোভার কবিতার মাধ্যমে প্রতিবাদ দেখিয়েছিলেন। টুইট করে কবিতাটি সর্বজনীন করেছিলেন বরুণ। জানিয়ে দিয়েছিলেন, চাইলে যে কেউ নিজের মতো করে লাইনগুলি ব্যবহার করতে পারে। কবিতটির শব্দের উপরে কোনও স্বত্ব নেই। ওই কবিতাটিই বাংলায় অনুবাদ করা হয়েছে। আর তাতে গলা মিলিয়েছেন সব্যসাচী চক্রবর্তী, অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়, কঙ্কনা সেনশর্মা, ধৃতিমান চট্টোপাধ্যায়, চিত্রাঙ্গদা, তিলোত্তমা সেন ও রূপম ইসলামের মতো বাংলার শিল্পীরা। ভিডিয়োটি টুইট করেছেন স্বরাজ ভারতের জাতীয় সভাপতি যোগেন্দ্র যাদব। 

১ মিনিট ২৭ সেকেন্ডের ভিডিয়ো শুরু হচ্ছে সব্যসাচী চক্রবর্তীর ব্যারিটোন কণ্ঠস্বর দিয়ে। বলছেন,''শাসক আসবে, শাসক যাবে কাগজ আমরা দেখাবো।'' স্বস্তিকার কথায়,'' ভালবাসা ও বিপ্লব বুকে ভয়েতে পিছু হটব না, কাগজ আমরা দেখাব না। ''  

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন গত শুক্রবার গোটা দেশে চালু করার নির্দেশিকা দিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। গতকাল,রবিবার বেলুড়ে প্রধানমন্ত্রী আরও একবার স্পষ্ট করেন, ''নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের সঙ্গে এদেশের নাগরিকদের কোনও সমস্যা নেই। এটা নাগরিকত্ব দেওয়ার আইন, নাগরিকত্ব ছিনিয়ে নেওয়া নয়। মানুষকে ভুল বুঝিয়ে রাজনীতি করা হচ্ছে।'' বিজেপির বক্তব্য, দেশের নাগরিকদের কাগজ দেখানোর কোনও প্রশ্নই নেই। 

আরও পড়ুন- ফেমাস হওয়ার পরও নিজের পাড়ায় মাত্র দু’টো গান গাইবার সুযোগ পেলেন রানু মণ্ডল!