চতুর্থবার বাবা হচ্ছেন, আবেগঘন Saif Ali Khan

ফেব্রুয়ারিতেই আসছে করিনার দ্বিতীয় সন্তান 

Updated By: Feb 5, 2021, 03:11 PM IST
চতুর্থবার বাবা হচ্ছেন, আবেগঘন Saif Ali Khan
সারা, ইব্রাহিম, তৈমুরের সঙ্গে সইফ

নিজস্ব প্রতিবেদন: চতুর্থবার বাবা হচ্ছেন সইফ আলি খান। চতুর্থবার বাবা হওয়ার খুশি ধরে রাখতে পারলেন না সইফ। সম্প্রতি এক সংবাদমাধ্যমের সাক্ষাতকারে হাজির হন বলিউডের ছোটে নবাব। ওই সাক্ষাতকারে সইফ বলেন, কেরিয়ারের শুরুতে তিনি বেশ অস্থির ছিলেন। করিনার সঙ্গে বিয়ের পর তৈমুর যখন তাঁর জীবনে আসে, সেই সময় থেকে থিতু হতে শুরু করেন তিনি। তৈমুরের জন্মের পর তাঁর জীবনের অস্থিরতা কেটে গিয়েছে। জীবনে আরও বেশ কিছুটা থিতু হতেই ফের বাবা হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে জানান সইফ।

পাশাপাশি তিনি আরও বলেন, পরিবারকে নিয়ে সময় কাটছে তাঁর। সন্তানরা সব সময় তাঁর চারপাশে থাকবে, এর চেয়ে ভাল আর কছু হতে পারে না। সন্তানদের নিয়ে সব সময় থাকার অনুভূতি একেবারে অন্যরকম বলেও মত প্রকাশ করেন সইফ আলি খান (Saif Ali Khan)।

আরও পড়ুন : ​Priyanka-র বাড়িতেই নতুন সংসার বাঁধছেন Jacqueline

ফেব্রুয়ারিতেই আসছে সইফ, করিনার (Kareena Kapoor Khan) সন্তান। মার্চে করিনার দ্বিতীয় সন্তান আসার কথা থাকলেও পরে সিদ্ধান্ত বদল করা হয়। ফলে ফেব্রুয়ারিতেই করিনার দ্বিতীয় আসবে বলে সম্প্রতি জানান সইফ। পাশাপাশি তিনি আরও জানান, পিতৃত্বকালীন ছুটি কাটিয়েই ফের তিনি শ্যুটিংয়ে ফিরবেন। পিতৃত্বকালীন ছুটি কাটিয়ে ফেরার পর প্রভাসের সঙ্গে 'আদিপুরুষের' শ্যুটিং শুরু করবেন সইফ আলি খান। যা নিয়ে ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে বিস্তর বিতর্ক।

আরও পড়ুন : Farmers' Protest : কিশোরী গ্রেটার কুশপুতুল পোড়নোর ছবি বিরক্তিকর, ক্ষুব্ধ রিচা

 
 
 
 

 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

 

২০১২ সালে করিনা কাপুরের সঙ্গে দ্বিতীয়বার গাঁটছড়া বাঁধেন সইফ আলি খান। বিয়ের পর থেকেই বলিউডের (Bollywood) এই তারকা দম্পতি পরিচিত হন 'সইফিনা' নামে। করিনার সঙ্গে বিয়ের পর তৈমুর আসে সইফের জীবনে। তৈমুরের (Taimur Ali Khan) জন্মের ৩ বছর পর এবার সইফ আলি খান চতুর্থবার বাবা হতে চলেছেন। প্রসঙ্গত প্রথম স্ত্রী অমৃতা সিংয়ের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর সইফের দুই সন্তান তাঁদের মায়ের সঙ্গেই থাকেন। অমৃতার সঙ্গে থাকলেও সইফের সঙ্গে যে সারা আলি খান এবং ইব্রাহিম খানের সম্পর্ক বেশ ভাল, তার ছবি বার বার প্রকাশ্যে উঠে আসে। এমনকী, করিনার সঙ্গেও সইফের প্রথম পক্ষের সন্তানের বেশ ভাল সম্পর্ক বলেই জানা যায়।