'ওখানে পর্দা আছে, গাউন পালটে ফেলুন', চিকিতসকের কথা শুনে 'হতভম্ব' কণিকা

কণিকা কাপুরের বাড়ির লোক অভিযোগ করেন

Edited By: জয়িতা বসু | Updated By: Apr 3, 2020, 04:39 PM IST
'ওখানে পর্দা আছে, গাউন পালটে ফেলুন', চিকিতসকের কথা শুনে 'হতভম্ব' কণিকা

নিজস্ব প্রতিবেদন : ​ফের বিতর্ক শুরু হল কণিকা কাপুরকে নিয়ে। এবার বলিউড গায়িকার বাড়ির লোকের একটি মন্তব্যকে ঘিরে শুরু হয়েছে জোর শোরগোল।

বর্তমানে লখনইয়ের সঞ্জয় গান্ধী পোস্ট গ্র্যাজুয়েট ইনস্টিটিউট অফ মেডিকেল সায়েন্সে ভর্তি কণিকা কাপুর। ওই হাসপাতালেরই একটি আইসোলেশন ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে গায়িকাকে। সম্প্রতি কণিকা কাপুরের বাড়ির লোক অভিযোগ করেন সংশ্লিষ্ট হাসপাতালের এক চিকিতসকের বিরুদ্ধে।

 

 
 
 
 

 
 
 
 
 
 
 
 
 

 

অভিযোগ, ওই হাসপাতালের এক চিকিতসক কণিকাকে বলেন, ওখানে পর্দা আছে, গাউন পালটে ফেলুন। ওই চিকিতসকদের পরামর্শ শুনে  কণিকা নাকি 'হতভম্ব' যান। ওই চিকিতসকের কথার প্রতিবাদও নাকি করেন কণিকা। 

আরও পড়ুন  : করোনা রুখতে ১.২৫ কোটির অনুদান জনপ্রিয় তেলুগু অভিনেতা বালাকৃষ্ণের

প্রসঙ্গত, এর আগেও অভিযোগ ওঠে কণিকা নাকি তারকাসুলভ হাবভাব করছেন হাসপাতালের মধ্যে। শুধু তাই নয়, কণিকা হাসপাতালের মধ্যে পাঁচতারা হোটেলের মতো সুযোগ সুবিধা চাইছেন বলেও করা হয় অভিযোগ। যদিও হাসপাতাল কতৃপক্ষের ওই অভিযোগ মানতে নারাজ কণিকা। তিনি পালটা বলেন, তিনি যে ঘরে থাকছেন, সেখানকার মেঝে নোংরা ছিল। তা পরিষ্কার করে দিতে বলাতেই চিকিতসক, নার্সরা নাকি তাঁর উপর ক্ষেপে যান।

গত ৯ মার্চ লন্ডন থেকে মুম্বইতে হাজির হন কণিকা কাপুর। ১১ মার্চ মুম্বই থেকে লখনউতে হাজির হন। উত্তরপ্রদেশে হাজির হওয়ার পর প্রথমে কানপুর, পরে লখনউয়ের পাঁচতারা হোটেলে পরপর ৩টি হাই প্রোফাইল পার্টিতে হাজির হন তিনি। এপর ১৮ মার্চ তাঁর শরীরে করোনা উপসর্গ দেখা দিলে, পরীক্ষা করানো হয়। পরীক্ষার পর জানা যায়, কোভিড ১৯-এ আক্রান্ত তিনি। করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পরই লখনউয়ের ওই হাসপাতালে ভর্তি করা হয় কণিকা কাপুরকে।