লকডাউনেও প্রতিদিন মদের দোকান খোলার আর্জি, ঋষি কাপুরের মন্তব্যে চটলেন নেটিজেনরা

এই পরিস্থিতিতে টুইটারে বৈধ মদের দোকান খোলার আর্জি জানিয়ে সমালোচনার মুখে ঋষি কাপুর। 

Updated By: Mar 29, 2020, 04:38 PM IST
লকডাউনেও প্রতিদিন মদের দোকান খোলার আর্জি, ঋষি কাপুরের মন্তব্যে চটলেন নেটিজেনরা

নিজস্ব প্রতিবেদন: করোনার জেরে গোটা দেশে লকডাউন। বন্ধ রয়েছে মদের দোকান। এই পরিস্থিতিতে টুইটারে বৈধ মদের দোকান খোলার আর্জি জানিয়ে সমালোচনার মুখে ঋষি কাপুর। 

লকডাউন থেকে ছাড় পায়নি বৈধ মদের দোকানগুলিও। সেগুলি এখন পুরোপুরি বন্ধ। আর এতেই খানিকটা বিরক্ত হয়ে টুইট করে বসেছেন প্রবীণ অভিনেতা ঋষি কাপুর। টুইটে অভিনেতা লিখেছেন, ''একবার ভাবুন, আমার মনে হয়, সরকারের অন্তত সন্ধের সময় বৈধ মদের দোকানগুলো খোলা রাখার অনুমতি দেওয়া উচিত। আমার কথাটা ভুলভাবে নেবেন না। এই অনিশ্চিত পরিস্থিতিতে অনেক পুরুষই অবসাদের মধ্যে দিন কাটচ্ছেন। পুলিস, চিকিৎসক, সাধারণ নাগরিক, সকলেরই কিছুটা মানসিক শান্তির তো প্রয়োজন। আর তাছারা এতে অবৈধভাবে তো মদ বিক্রি হচ্ছেই।''

আরও পড়ুন-Exclusive: অনেকেই ঠকিয়েছে, শিলাজিৎ-ও আমার কাছ থেকে গান নিয়ে গিয়েছিল, 'বিস্ফোরক বড়লোকের বিটি লো'র রতন কাহার...

আরও একটি টুইটে ঋষি কাপুর বলেন, ''এছাড়া রাজ্য সরকারেরও তো কিছু শুল্কে পাবে এটা থেকে। টাকারও তো দরকার রয়েছে। এই পরাজয় যেন অবসাদের কারণ না হয়ে ওঠে। লোকে তো সেই বেআইনিভাবে খাচ্ছে, সেটা আইনসম্মত করে দিলেই হয়। যদিও এটা আমার মত।''

ঋষি কাপুরের এধরনের কথাবার্তায় বেজায় চটেছেন নেটিজেনরা। কেউ লিখেছেন, ''লোকজন খেতে পাচ্ছে না আর আপনি মদ খাওয়ার কথা বলছেন? গরীবদের জন্য কিছু আপনি কি দান করেছেন?''কেউ আবার লিখেছেন,''একজন দায়িত্ববান নাগরিক হিসাবে আপনার উচিত, কেউ বেআইনিভাবে মদ কিনলে বা বিক্রি করলে পুলিসে খবর দেওয়া।'', কেউ আবার প্রশ্ন করেছেন, 'আপনি কি পাগল?'।

তবে এই প্রথম নয়, এর আগেও টুইটারে বহুবার বিতর্কিত মন্তব্য করে সমালোচনার শিকার হয়েছেন ঋষি কাপুর। 

আরও পড়ুন-রতন কাহারের 'বড় লোকের বিটি লো' নিয়ে 'নেপোয় মারলো দই', সোশ্যাল মিডিয়ায় হইচই