স্বাধীনতা দিবসে সীমানা পার করে সৃজিতের সঙ্গে ভারতে প্রবেশ করলেন মিথিলা

 বাংলাদেশ থেকে সীমান্ত পার করে শ্বশুরবাড়ির দেশে চলে এলেন অভিনেত্রী, সমাজকর্মী রাফিয়াত রশিদ মিথিলা। 

Edited By: রণিতা গোস্বামী | Updated By: Aug 15, 2020, 02:10 PM IST
স্বাধীনতা দিবসে সীমানা পার করে সৃজিতের সঙ্গে ভারতে প্রবেশ করলেন মিথিলা

নিজস্ব প্রতিবেদন : অবশেষে ভালোবাসা মিলিয়ে দিল সৃজিত মুখোপাধ্যায় ও রাফিয়াত রশিদ মিথিলাকে। ১৫ অগস্ট, ভারতের স্বাধীনতা দিবসের দিন বাংলাদেশ থেকে সীমান্ত পার করে শ্বশুরবাড়ির দেশে চলে এলেন অভিনেত্রী, সমাজকর্মী রাফিয়াত রশিদ মিথিলা। আর এখবর নিজেই সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায়।

স্ত্রী মিথিলার এদেশে আসার খবর জানিয়ে ফেসবুকে সৃজিত লিখেছেন, ''১৯৪৭ সালের ১৫ অগস্ট ঘৃণার কারণে অনেকেই সীমান্ত পার করেছিলেন। ২০২০-র ১৫ অগস্ট ভালোবাসার জন্য দুজন ফের সীমানা পার করলেন।'' এই পোস্টের সঙ্গে পেট্রাপোল সীমান্ত পার করে মিথিলা ও তাঁর মেয়ে আইরাকে এদেশে নিয়ে আসার বেশ কয়েকটি ছবিও পোস্ট করেছেন সৃজিত। এদিন সকালে একদেশ থেকে আরেক দেশে আসার প্রয়োজনীয় নিয়মকানুন মেনেই বাংলাদেশ থেকে ভারতে আসেন রাফিয়াত রশিদ মিথিলা ও তাঁর মেয়ে আইরা তাহরিম খান। সৃজিত তাঁদের গাড়িতে করে বাড়ি নিয়ে আসার জন্য পৌঁছোন।

আরও পড়ুন-সুশান্ত নয়, ফ্ল্যাটের EMI নিজেই দিতে, প্রমাণ হিসাবে অ্যাকাউন্ট ডিটেলস প্রকাশ অঙ্কিতার

আরও পড়ুন-অঙ্কিতার ফ্ল্যাটের EMI দিচ্ছিলেন সুশান্ত! রিয়ার দাবি কি সত্যি?

প্রসঙ্গত, ৬ ডিসেম্বর বাবারি মসজিদ ধ্বংসের দিন হিন্দু-মুসলিম মৈত্রী বার্তা দিয়ে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয় পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায় ও বাংলাদেশের অভিনেত্রী, সমাজকর্মী রাফিয়াত রশিদ মিথিলা। তবে বিয়ের পর মধুচন্দ্রিমা সেরে বাংলাদেশে মেয়ে আইরাকে নিয়ে ফিরে যান মিথিলা। তারপর থেকে সৃজিত-মিথিলা দুজনে আলাদাই ছিলেন। করোনার কারণে, গোটা দেশে লকডাউন, আন্তর্জাতিক বিমান চলাচল এখনও বন্ধই রয়েছে। সেকারণে এতদিন মিথিলার এদেশে আসা সম্ভব হয়নি। সৃজিতও বাংলাদেশে যেতে পারেননি। তবে অবশেষে ১৫ অগস্ট ভারতে এলেল মিথিলা। মিথিলা কন্যা আইরাকেও কলকাতার একটি নামী স্কুলে সৃজিত ভর্তি করিয়েছেন বলে খবর। তাই আপাতত মায়ের সঙ্গে আইরাও এদেশেই থাকবেন।