প্রস্টেট ও ব্রেস্ট ক্যানসারের সম্ভাবনা বাড়ছে প্লাস্টিকের বোতলের ওষুধে

প্লাস্টিকের বোতলে ওষুধ। সুস্থ হতে ঢোঁক ওষুধে। রোগ সারাতে গিয়ে হচ্ছে হিতে বিপরীত। মারণ ব্যাধি বাসা বাঁধছে শরীরে। গর্ভবতী মহিলাদের বিপদ বাড়ছে। সম্ভাবনা বাড়ছে প্রস্টেট ও ব্রেস্ট ক্যানসারের।

Updated By: Oct 17, 2016, 05:35 PM IST
প্রস্টেট ও ব্রেস্ট ক্যানসারের সম্ভাবনা বাড়ছে প্লাস্টিকের বোতলের ওষুধে

ওয়েব ডেস্ক: প্লাস্টিকের বোতলে ওষুধ। সুস্থ হতে ঢোঁক ওষুধে। রোগ সারাতে গিয়ে হচ্ছে হিতে বিপরীত। মারণ ব্যাধি বাসা বাঁধছে শরীরে। গর্ভবতী মহিলাদের বিপদ বাড়ছে। সম্ভাবনা বাড়ছে প্রস্টেট ও ব্রেস্ট ক্যানসারের।

আরও পড়ুন শরীর সুস্থ রাখতে লেবুর রস কতটা উপকার করে জানুন

আতিকস সাহা। বয়স ২ বছর ৩ মাস। দুরন্ত, চঞ্চল একটা শিশু। এটা-ওটা মুখে দিচ্ছে। তাই পেট খারাপ লেগেই থাকে। হুটহাট ঠান্ডা লাগাও আছে। তাই ওষুধই ভরসা। টেবিল হোক বা তাক, ওষুধে ঠাসা সাহা বাড়ি। প্রেসক্রিপশন মিলিয়ে ওষুধ খাওয়ান মা তনুজা চক্রবর্তী সাহা। খেলেধুলে বেড়ালেও ওষুধে বিরাম নেই আতিকসের। বেশিরভাগই তরল ওষুধ। প্লাস্টিকের বোতলে বন্দি। সেখানেই বিপদ। আর তা শুনে তো তনুজা রীতিমতো আতঙ্কিত।

আরও পড়ুন জীবনের সেরা শিক্ষাটা কোনও ক্রীড়াবিদ হিসেবে আমাদের দিয়েছেন অনিল কুম্বলে

শুধু ছেলে কেন, নিজের শরীর নিয়েও যথেষ্ট চিন্তায় তনুজা। চিকিত্সকরা বলেছেন, গর্ভাবস্থায় প্লাস্টিকের বোতলে ওষুধ খেলে মারাত্মক বিপদ। সংক্রমণ ঘটতে পারে ইউটেরাসে। তাই চিন্তায় তনুজা। গর্ভাবস্থায় যে যে তরল ওষুধ তাঁকে খেতে হয়েছে, সবই তো প্লাস্টিকের বোতলে।

আরও পড়ুন মহিলাদের শরীর সুস্থ রাখার ঘরোয়া আয়ুর্বেদিক উপায়

ভয় আছে। চিন্তা আছে। তবুও নিরুপায় তনুজা। শরীর খারাপে ওষুধ তো খেতেই হবে। সে যে বোতলেই আসুক না কেন। তনুজা বা আতিকসদের চিন্তা দূর করতে উপায় একটাই। প্লাস্টিকের বোতলে ওষুধ বন্ধ।

আরও পড়ুন প্লাস্টিকের বোতলে ওষুধ থেকে মারণ ব্যাধি বাসা বাঁধছে শরীরে