করোনার ওষুধ হিসেবে গ্রাহ্য নয়, পতঞ্জলির Coronil-কে সুবজ সংকেত দেয়নি WHO

সংস্থা দাবি করে, পতঞ্জলির তৈরি ‘করোনিল’ ট্যাবলেট নাকি ৭ দিনেই করোনা সংক্রমণ সারিয়ে দেবে। এমনকী করোনিল বাজারজাতও করে দেওয়া হয়।

Updated By: Feb 21, 2021, 06:39 PM IST
 করোনার ওষুধ হিসেবে গ্রাহ্য নয়, পতঞ্জলির Coronil-কে সুবজ সংকেত দেয়নি WHO

নিজস্ব প্রতিবেদন: বৈজ্ঞানিক পেপার বের হয়েছে ঠিকই, কিন্তু তাতে নেই World Health Organisation (WHO) এর স্বাক্ষর, স্পষ্ট করে জানিয়ে দিল পতঞ্জলি। অন্যদিকে, WHO এর তরফে জানান হয়েছে, তারা কোনও সার্টিফিকেট দেয়নি পতঞ্জলির তৈরি Coronil -কে। এমনকি ওষুধের রিভিউ পর্যন্ত করা হয়নি। 

 

আচার্য বালাকৃষ্ণ স্পষ্ট করে জানিয়েছেন, Pharmaceutical Product (CoPP) সার্টিফিকেট পেয়েছে Coronil।  তবে  WHO সবুজ সংকেত দেয়নি। 

 

প্রসঙ্গত, শুক্রবার যোগগুরু রামদেব  Covid-19 রোধে পতঞ্জলি ওষুধ নিয়ে গবেষণা পত্র প্রকাশ করেছেন। এদিনের সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডাঃ হর্ষ বর্ধন এবং নিতীন গডকড়ী। পতঞ্জলি সংস্থা থেকে জানানো হয়েছে, WHO-এর শংসাপত্রের স্কিম অনুযায়ী সেন্ট্রাল ড্রাগস স্ট্যান্ডার্ড কন্ট্রোল অর্গানাইজেশন ও আয়ুশ বিভাগ থেকে Pharmaceutical Product (CoPP) সার্টিফিকেট পেয়েছে Coronil।  যার আওতায় ১৫৮ টি দেশে রফতানি করা ওই ওষুধ। ই বিষয়ে বাবা রামদেব বলেন, 'এখন থেকে প্রাকৃতিক চিকিৎসার ভিত্তিতে সাশ্রয়ী মূল্যের চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব হবে '। 

 

তাঁর কথায়, "উপস্থাপিত তথ্যের ভিত্তিতে, আয়ুশ মন্ত্রক করোনিল ট্যাবলেটকে COVID-19 এর সঙ্গে লড়াই করার ওষুধ হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে"।  সংস্থা দাবি করে, পতঞ্জলির তৈরি ‘করোনিল’ ট্যাবলেট নাকি ৭ দিনেই করোনা সংক্রমণ সারিয়ে দেবে। এমনকী করোনিল বাজারজাতও করে দেওয়া হয়।