'যেন জালিয়ানওয়ালাবাগ', বাম ছাত্রযুবদের উপর পুলিসি হামলা প্রসঙ্গে বিমান

গণতন্ত্রের উপর আক্রমণ এলে হয়তো এমনই হয় বলে মত বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসুর।

Updated By: Feb 12, 2021, 02:06 PM IST
'যেন জালিয়ানওয়ালাবাগ', বাম ছাত্রযুবদের উপর পুলিসি হামলা প্রসঙ্গে বিমান

নিজস্ব প্রতিবেদন: সেই কলঙ্কিত জালিয়ানওয়ালাবাগের কথা মনে করালেন বিমান বসু। বৃহস্পতিবার বাম ছাত্রযুবদের ডাকা নবান্ন অভিযানে পুলিসের লাঠিচার্জ ইত্যাদি প্রসঙ্গে এই কথা বলেন বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান তথা পলিটব্যুরো সদস্য বিমান বসু।  

বামেদের (Left) ডাকে শুক্রবার রাজ্য জুড়ে পালিত হচ্ছে ১২ ঘণ্টার বনধ। বামেদের ডাকা এই বনধে যোগ দিয়েছে কংগ্রেসও। বনধকে সমর্থন জানিয়েছেন আব্বাস সিদ্দিকী। বৃহস্পতিবার বাম ছাত্র-যুবদের ডাকা নবান্ন অভিযানে পুলিসের লাঠিচার্জ, দমননীতির প্রতিবাদে শুক্রবার রাজ্য জুড়ে এই বনধ কর্মসূচি পালনের ডাক দেওয়া হয়েছে। নেতৃত্ব দাবি করেছেন যে, কোথাও জোর করে বনধ পালন করা হবে না। সিপিআইএম নেতা সূর্যকান্ত মিশ্র বলেন, কোথাও জোর করে রাস্তা আটকানো হবে না, আটকানো হবে না মানুষকেও। সুজন চক্রবর্তীও একই সুরে বলেন, মানুষের স্বতঃস্ফূর্ত সমর্থনেই বনধ পালিত হবে। যদিও জায়গায় জায়গায় বিক্ষিপ্ত অশান্তির ঘটনাও সামনে এসেছে।

আরও পড়ুন: রাজ্য জুড়ে চলছে বামেদের ধর্মঘট, তৎপর প্রশাসন

এন্টালি থেকে কলেজ স্ট্রিট-- বামেদের যে মিছিল শহরের পথে শুক্রবার নেমেছিল, সেখানেই বিমান বসুকে (Biman Basu) ধরা গেল। গতকালের ঘটনার প্রসঙ্গে তাঁকে প্রশ্ন করা হলে তিনি জানান, খুবই নিন্দনীয় ঘটনা। শান্তিপূর্ণ অবস্থান বিক্ষোভে হামলা করা-- এটা একটা নতুন জিনিস করল তৃণমূল কংগ্রেস। তবে যখন গণতন্ত্রের উপর হামলা হয়, তখন বোধ হয় এমনই হয়। 
রাজ্যের নতুন রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে বামেরা যে আবার নতুন করে উজ্জীবিত হয়েছেন, আগের চেয়ে অনেক 'মোটিভেটেড', কথাপ্রসঙ্গেও এমন জানান বিমান। 

এরপর গতকালের ঘটনা এবং আজকের বনধ নিয়ে প্রশ্ন করা হয় তাঁকে। তখনই তিনি জানিয়ানওয়ালাবাগের প্রসঙ্গ তোলেন। বিমান বলেন, 'গতকাল যা ঘটেছে তা ঘটা উচিত ছিল না। সরকারের পক্ষ থেকে পুলিসের পক্ষ থেকে এমন একটা পরিবেশ তৈরি করা হল যেন যুদ্ধক্ষেত্র। খানিকটা যেন প্রতীকী জানিয়ানওয়ালাবাগ। নির্মম ভাবে কয়েকশো ছাত্রযুবর উপর হামলা করা হল। আমরা এর তীব্র নিন্দা করছি। অন্যান্য বাম দল, বাম ছাড়া অন্য দল এবং কংগ্রেস সকলের সঙ্গে কথা বলেই আমরা এই ন্যক্কারজনক ঘটনার দ্রুত প্রতিবাদ করার সিদ্ধান্ত নিই। সব রাজনৈতিক দলের সঙ্গে কথা বলেই ধর্মঘটের ঘোষণা। চটজলদি ঘটনা ঘটেছে, চটজলদি প্রতিবাদ করেছি।'

আরও পড়ুন: আসানসোলে বাইক আরোহীকে মারধর বনধ সমর্থকারীদের