'এত সাপ্লাই দেওয়া যাবে না, সাদা কাপড় কেটে মাস্ক বানিয়ে নিন'

বিজেপি রাজ্য সভাপতির কথায়, "এত মাস্ক সাপ্লাই দেওয়া যাবে না। ভাইরাসের সাইজ বড়, তাই কাপড়ই যথেষ্ট।"

Reported By: অঞ্জন রায় | Updated By: Mar 12, 2020, 07:46 PM IST
'এত সাপ্লাই দেওয়া যাবে না, সাদা কাপড় কেটে মাস্ক বানিয়ে নিন'

নিজস্ব প্রতিবেদন : করোনাভাইরাস নিয়ে আবার নয়া দাওয়াই দিলীপ ঘোষের। "করোনাভাইরাসে কিচ্ছু হবে না, মায়ের আশীর্বাদ আছে," কদিন আগেই এই বলে আশ্বস্ত করেছিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি। এদিন দিলীপ ঘোষের নয়া দাওয়াই, "করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে সাদা পরিষ্কার কাপড় কেটে নিজেরাই মাস্ক তৈরি করে নিন।" বিজেপি রাজ্য সভাপতির কথায়, "এত মাস্ক সাপ্লাই দেওয়া যাবে না। ভাইরাসের সাইজ বড়, তাই কাপড়ই যথেষ্ট।" দিলীপ ঘোষের এহেন নিদানে অবাক চিকিৎসকমহল। বিজেপি রাজ্য সভাপতির এই মন্তব্যে শুরু হয়ে গিয়েছে বিতর্কও।

প্রসঙ্গত, বিশ্বে আতঙ্কের অপর নাম হয়ে দাড়িয়েছে করোনাভাইরাস। করোনার সংক্রমণকে 'বিশ্ব মহামারী' বলে ঘোষণা করেছে WHO। কোনও দেশই এই মারণ ভাইরাসের হাত থেকে রক্ষা পাচ্ছে না। এখন এই ভাইরাসের প্রকোপ থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য চিকিত্সকদের প্রাথমিক পরামর্শ, মাস্ক ব্যবহার করুন। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে চিকিৎসকরা প্রধানত n95 মাস্ক ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছেন।

পাশাপাশি, সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে বার বার সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে ফেলা, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করার কথা বলা হয়েছে। কারও হাঁচি-কাশি রয়েছে, তাঁর থেকে খানিকটা দূরত্ব বজায় রেখে কথা বলার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা। আবার কারও হাঁচি-কাশির সময় তাঁরও নাকে-মুখে চাপা দেওয়া আবশ্যিক। করোনা আতঙ্কে কার্যত ত্রাহি ত্রাহি রব উঠেছে। ভারতেও বেড়ে চলেছে আক্রান্তের সংখ্যা।

আরও পড়ুন, করোনা 'রুখতে' ক্যাউপ্যাথি! গোমূত্র দিয়ে তৈরি স্যানিটাইজার বিকোচ্ছে হু হু করে

আরও পড়ুন, করোনাভাইরাসে কিচ্ছু হবে না, মায়ের আশীর্বাদ আছে, দাওয়াই 'ধন্বন্তরী' দিলীপের

এই পরিস্থিতিতে সংক্রমণ ঠেকাতে জমায়েত এড়িয়ে চলতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। অযথা আতঙ্ক না ছড়িয়ে সবরকম সাবধানতা নেওয়ার কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানে তাঁর দলের এক রাজ্য সভাপতির 'সাদা কাপড় কেটে মাস্ক বানানো'র পরামর্শে ইতিমধ্যেই বিতর্ক দেখা দিয়েছে। তবে নিজস্ব ঢঙে বিভিন্ন সময়ে 'টোটকা' দিয়ে এর আগেও শিরোনামে এসেছেন দিলীপ ঘোষ। এর আগে 'গরুর দুধে সোনা থাকে' বলে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি।