'আমাদের কোনও মাথাব্যথা নেই', শুভেন্দুকে নিয়ে চাঁচাছোলা প্রতিক্রিয়া সূর্যকান্তের

ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসুর।

Reported By: মৌমিতা চক্রবর্তী | Updated By: Nov 28, 2020, 02:17 PM IST
'আমাদের কোনও মাথাব্যথা নেই', শুভেন্দুকে নিয়ে চাঁচাছোলা প্রতিক্রিয়া সূর্যকান্তের
নিজস্ব প্রতিবেদন: 'তৃণমূল ওদের পার্টি সামলাক, আমাদের কোনও মাথাব্যথা নেই। মমতার কথায় গুরত্ব দিই না।' শুভেন্দু অধিকারীর মন্ত্রিত্ব ছাড়া নিয়ে চাঁচাছোলা ভাষায় প্রতিক্রিয়া দিলেন সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র। শুভেন্দুর অবস্থান এখনও স্পষ্ট নয়, রাজনীতি কখনও স্ট্রেট লাইনে চলে না, ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসুর।
 
 
এবার কোন পথে হাঁটবেন? তাহলে এবার বিজেপিতেই যোগ দেবেন? মন্ত্রিত্ব ছাড়ার পর শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে জল্পনা এখন সপ্তমে। খাতায়-কলমে তিনি এখনও নন্দীগ্রামের তৃণমূল বিধায়ক। তাঁর খাসতালুক পূর্ব মেদিনীপুরের খেজুরিতে যখন তৃণমূলের একাধিক পার্টি অফিস দখলের অভিযোগকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়িয়েছে, তখন সদ্য প্রাক্তন পরিবহণমন্ত্রী বিধায়ক পদও ছাড়তে চলেছেন বলে শোনা যাচ্ছে কানাঘুষোয়। ঘনিষ্ঠমহল সূত্রে ইঙ্গিত মিলেছে যে, তৃণমূলের কিছু নেতা কটাক্ষ করেছেন, তৃণমূলের সব পদ ছেড়েই বিজেপিতে যাওয়া উচিত।  সরকারি পদ ও মন্ত্রিত্ব ছাড়লেও, শুভেন্দু কিন্তু এখনও খাতায়-কলমে বিধায়ক এবং শেষপর্যন্ত যদি বিজেপিতে চলে যান, সেক্ষেত্রেও তিনি জনপ্রতিনিধি থেকে যাবেন। এই পরিস্থিতিতে আগামী সপ্তাহে বিধানসভা স্পিকারের কাছে ইস্তফাপত্র জমা দিতে পারেন শুভেন্দু। ঘনিষ্ঠমহল থেকে অন্তত তেমনই ইঙ্গিত মিলেছে।
 
 
ভোটের মুখে শুভেন্দু অধিকারীর মন্ত্রিত্ব ছাড়া নিয়ে কী বলছে বিরোধীরা? এই বিষয় নিয়ে কার্যত মাথা ঘামাতেই রাজি নয় বামেরা। সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র বলেন, 'তৃণমূল থেকে অনেকেই বিজেপিতে গিয়েছেন। আমাদের কোনও মাথাব্যথা নেই। নীতিগতভাবে ৩৫৬ ধারা ও রাজ্যপাল পদের বিরোধী। সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করতে হবে বিধানসভায়।' এদিকে অধীর চৌধুরীর গড় মুর্শিদাবাদে একসময়ে তৃণমূলের পর্যবেক্ষক ছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসুর প্রতিক্রিয়া, 'অধীর তৃণমূল কর্মীদের দেখেছেন। অসুবিধায় কোথায়! রাজনীতি কখনও স্ট্রেট লাইন চলে না। কংগ্রেসও তো একসময়ে আমাদের উপর হামলা করত।' মুর্শিদাবাদে কি রাজনৈতিক সমীকরণ বদলাবে? জল্পনা তুঙ্গে।