পাগড়িকাণ্ডে নয়া মোড়, এবার হাওড়া পুলিসের বিরুদ্ধেই থানায় পাল্টা অভিযোগ শিখ সংগঠনের

হাওড়া সিটি পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে বলবিন্দরের বন্দুকের লাইসেন্স পরীক্ষার জন্য তাকে রাজৌরি নিয়ে যাওয়া হবে।

Updated By: Oct 12, 2020, 08:19 PM IST
পাগড়িকাণ্ডে নয়া মোড়, এবার হাওড়া পুলিসের বিরুদ্ধেই থানায় পাল্টা অভিযোগ শিখ সংগঠনের
ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদন: বিজেপির নবান্ন অভিযানে শিখ যুবক বলবিন্দর সিংয়ের গ্রেফতার কাণ্ডে নয়া মোড়। একজন শিখের পাগড়ির অপমান করা হয়েছে এই অভিযোগে সোমবার হাওড়া থানায় পুলিসের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করলেন দিল্লি গুরুদ্বার প্রবন্ধক কমিটির সভাপতি মনজিন্দর সিং।

আরও পড়ুন-মধ্যবিত্তের স্বস্তি! একধাক্কায় অনেকটাই কমল বেসরকারি হাসপাতালে COVID টেস্টের খরচ

রবিবার কলকাতায় আসেন মনজিন্দর সিং। এদিন তিনি হাওড়ায় গিয়ে ধৃত বলবিন্দরের সঙ্গে সাক্ষাত করেন। পরে রাজ্যপালের কাছে গিয়ে ওই গ্রেফতারি ও পাগড়ির অপমানের বিচার চেয়ে স্মারকলিপি জমা দেন। হাওড়া থানায় মনজিন্দর অভিযোগ করেছেন, বৃহস্পতিবার নবান্ন অভিযানের সময়ে হাওড়া ময়দান থানার পুলিস শিখ যুবক বলবিন্দর সিংকে বেধড়ক মারধর করে ও তার পাগড়ি টেনে খুলে নেয়। পাগড়ি খোলায় শিখদের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত লেগেছে।

মনজিন্দরের অভিযোগ, তৃণমূল এবং বিজেপির রাজনৈতিক লড়াইয়ের মধ্যে ওই যুবককে নিয়ে টানাহেঁচড়া করা হচ্ছে। এ ব্যাপারে রাজনীতি হোক তারা তা চান না। তারা শুধু বলবিন্দর এবং তার পরিবারের লোকেরা যাতে বিচার পায় সেই চেষ্টাই করছেন। তিনি দাবি করেন, বলবিন্দরের আগ্নেয়াস্ত্রের লাইসেন্স সারা ভারতে প্রযোজ্য।  পুলিশের কাছে তিনি বলবিন্দরকে মারের ভিডিও জমা দেন। পাশাপাশি আগামিকাল তার জামিনের জন্য হাইকোর্টে আবেদন করা হবে বলে তিনি জানান।

আরও পড়ুন-বাঙালি সেন্টিমেন্টে জড়িয়ে দুর্গাপুজো, ষষ্ঠীতেই রাজ্যবাসীর উদ্দেশে ভাষণ মোদীর

এদিকে, হাওড়া সিটি পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে বলবিন্দরের বন্দুকের লাইসেন্স পরীক্ষার জন্য তাকে রাজৌরি নিয়ে যাওয়া হবে। উল্লেখ্য, গতকাল তাকে হাওড়া আদালতে তোলা হলে বিচারক তাকে ৮ দিনের পুলিস হেফাজতের নির্দেশ দেন।