বর্ষায় বেরিয়ে পড়ছে কলকাতার রাস্তার হাড়পাঁজর, ভুল সময়ে মেরামতিতেই এই ভোগান্তি!

বেহালা বা বন্দর এলাকাকে বাদ দিলে শহরের বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা ইতিমধ্যেই নখ দাঁত বের করে ফেলেছে

Reported By: কমলাক্ষ ভট্টাচার্য | Updated By: Jun 22, 2021, 05:35 PM IST
বর্ষায় বেরিয়ে পড়ছে কলকাতার রাস্তার হাড়পাঁজর, ভুল সময়ে মেরামতিতেই এই ভোগান্তি!

কমলাক্ষ ভট্টাচার্য

পুজোয় ঝাঁ চকচকে রাস্তার উপর দিয়ে কলকাতার প্যান্ডেলে প্যান্ডেলে ঘোরে বাঙালি। আর সেই রাস্তায় বর্ষার জল পড়লেই বেরিয়ে পড়ে রাস্তার হাড়পাঁজরা। হটমিক্সের তাপ্পির চিরাচরিত প্রথার বদল না হলে এই দুর্ভোগ থেকে রেহাই নেই। পাশাপাশি রয়েছে রাস্তা মেরামতির পদ্ধতিতে গলদও। এমনটাই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

আরও পড়ুন-সারদায় আমানতকারীদের টাকা ফেরানোর উদ্যোগ, এক সদস্যের কমিটি গড়তে পারে হাইকোর্ট

শহর ঘুরে দেখা গেল, বেহালা বা বন্দর এলাকাকে বাদ দিলে শহরের বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা ইতিমধ্যেই নখ দাঁত বের করে ফেলেছে। যেমন পার্কসার্কাস(Park Circus) সেভেন পয়েন্ট। গুরুত্বপূর্ণ এই রোডই এখন খানাখন্দে ভরা। ফলে ছোটখাটো দুর্ঘটনা ছাড়াও গতি স্লথ হচ্ছে গাড়িঘোড়ার। আর গতি স্লথ হলে বাড়ছে দূষণ। সায়েন্স সিটি থেকে রুবি যাওয়ার রাস্তায় পঞ্চান্নগ্রামের পরিস্থিতি বেশ বিপজ্জনক। রাস্তায় বিশাল বিশাল গর্ত। এছাড়াও বিপজ্জনক হয়ে রয়েছে খিদিরপুরের(Khidirpur) কার্ল মার্ক সরণি। ট্রামলাইনজুড়ে বহু জায়গায় রাস্তায় তৈরি হয়েছে মরণফাঁদ। হেস্টিংস মোড়েও খানাখন্দের উপর দিয়ে চলছে যানবাহন।

আরও পড়ন-লোকসভায় ২সপ্তাহ আগেই 'ম্যারেজ অ্যানালমেন্ট'-র প্রতিলিপি জমা দিয়েছি: Nusrat

কেন এমন হয় ফি বছর? কোন পথে মিলতে পারে রেহাই

বিশিষ্ট নির্মাণ কারিগরি বাস্তুকার পার্থপ্রতিম বিশ্বাস বলেন

## সাধারণত যে সময় আমরা রাস্তা সারাই করি তা ঠিক নয়। রাস্তা তৈরি বা নির্মাণ করতে হবে ডিসেম্বর থেকে মার্চ মাসের মধ্যে। লক্ষ্য রাখতে হবে কোন সময়ে রাস্তার নীচের জলস্তর সবচেয়ে কম থাকে। মেরামত সেইসময়েই করা উচিত।

## বর্ষায় কলকাতার রাস্তা খানাখন্দে ভরে যায়, এটা নতুন কোনও ঘটনা নয়। রাস্তায় পটহোলস তৈরি হলে তা সঙ্গে সঙ্গে মেরামত করে ফেলা উচিত। তা না হলে তা হুহু করে বেড়ে যাবে।  বর্ষায় হটমিক্সের পরিবর্তে বরং কোল্ড মিক্স বেশি কার্যকারী। পটহোলস মেরামতির জন্য তা ভালোভাবে তা খুলে মেরামতি করতে হবে।

##  যে জায়গাগুলি প্রতিবছর ভাঙছে সেই জায়গাগুলি লক্ষ্য রাখতে হবে। দেখতে হবে সেই জায়গাগুলিতে যেন ইউটিলিটি লাইন না থাকে। 

## বর্তমানে কলকাতার বহু রাস্তায় কংক্রিটের চাদর ব্যবহার করা যেতে পারে। এতে পুরোপুরি কংক্রিটের থেকে খরচ কম হবে। 

## ইউটিলিটি লাইন পাতার ক্ষেত্রে রাস্তার মাঝে অংশ ব্যবহার করলে ভালো হয়। 

## পুরোনো রাস্তার মেরামতির ক্ষেত্রে দেখতে হবে নতুন মালমশলা যোগ করার সময় দুটি স্তরের মধ্যে যেন একটি জয়েনিং  এজেন্ট থাকে। 

## পট হোলস সারাবছর মেরামতির ব্যবস্থা করতে হবে। সেই মেরামতির দায়িত্ব নিতে হবে রাস্তা নির্মাণকারী কোম্পানিকেই।

(Zee 24 Ghanta App : দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)