রাতের শহরে ভয়াবহ বাইক দুর্ঘটনা! ICU-তে ময়ূখ রঞ্জন, মৃত্যু আরও এক সাংবাদিকের

মাথায় গুরুতর চোট পেয়েছেন ময়ূখ রঞ্জন, শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী তাঁর অবস্থা আশঙ্কাজনক।

Updated By: Jan 22, 2021, 09:32 AM IST
রাতের শহরে ভয়াবহ বাইক দুর্ঘটনা! ICU-তে ময়ূখ রঞ্জন, মৃত্যু আরও এক সাংবাদিকের
পাশাপাশি ময়ূখ এবং সোহম

নিজস্ব প্রতিবেদন: রাতের শহরে ফের মর্মান্তিক দুর্ঘটনা। বাইক দুর্ঘটনায় ১ সাংবাদিরকর্মীর মৃত্যু। অন্যজন গুরুতর জঘম অবস্থায় আইসিইউ-তে ভর্তি। বৃহস্পতিবার রাতে দক্ষিণ কলকাতার লর্ডস মোড়ে দুর্ঘটনাটি ঘটে। মৃত ওই সাংবাদিকের নাম সোহম মল্লিক। আহত সাংবাদিক ময়ূখ রঞ্জন ঘোষ। রাত সাড়ে ৩টে নাগাদ বাইক নিয়ে ফিরছিলেন ওই দুই সাংবাদিক। তখনই দুর্ঘটনাটি ঘটে। পুলিস সূত্রে খবর, গাছের সঙ্গে ধাক্কা মারে তাঁদের বাইকটি। নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পড়ে যান দু-জন। সুইগির কয়েকজন কর্মীর নজরে আসতেই তাঁরা ওই দুই সাংবাদিককে তুলে হাসপাতালে নিয়ে যায়। একজনকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়, এবং অন্যজনকে SSKM-এর সিসিইউতে রাখা হয়।

আরও পড়ুন:  প্রকাশ্য রাস্তায় দাউদাউ করে জ্বললেন দুই যুবক, একবালপুরে আতঙ্কিত এলাকাবাসী

ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় সোহমের। ময়ূখ রঞ্জনকে প্রথমে SSKM-এর আইসিইউতে রাখা হয় তারপর তাঁকে মল্লিকবাজারের নিউরো সায়েন্সে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। মাথায় গুরুতর চোট পেয়েছেন তিনি। শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী ময়ূখের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাঁর একটা চোখ নষ্ট হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা করছেন চিকিৎসকরা। 

পরিবার সূত্রে খবর, গতকাল রাতে ময়ূখের বাড়িতে যায় সোহম।  রাতে সেখানেই থাকার কথা ছিল। এরপর রাত সাড়ে ১১টা নাগাদ ইমন কল্যাণ লাহিড়ি নামে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের এক অধ্যাপকের বাড়িতে যান ময়ূখ আর সোহম। ফেরার পথে রাত সাড়ে ৩টে -৪টে নাগাদ বলরাম মিষ্টান্ন ভান্ডারের সামনে ঘটনাটি ঘটে। লেক থানার পুলিস জানিয়েছেন, ময়ূখের বয়ান অনুযায়ী, তাঁদের বাইকটা স্কিড করে একটা গাছে ধাক্কা মারে। তারপর আর কিছু মনে নেই ময়ূখের। বাইকটি সোহম চালাচ্ছিল। ইতিমধ্যেই ঘটনা খতিয়ে দেখছে লেক থানার পুলিস। 

পুরনো সম্পর্ক, পুরনো কলকাতা, পুরনো রাত...নতুন করে পাবো বলে।

Posted by Imankalyan Lahiri on Thursday, 21 January 2021

সদ্য নতুন চাকরিতে যোগ দিয়েছিলেন দু-জনই। সাংবাদিক মহলে ময়ূখ রঞ্জন বেশ পরিচিত মুখ। তাঁর লেখায় বরাবর মুগ্ধ হয়েছেন তামাম নেট দুনিয়া। সদ্য শহরে ফিরেছিলেন ময়ূখ। সোহমও দীর্ঘদিন কাজ করছেন এই পেশায়। দুর্ঘটনার খবরে স্বাভাবিকভাবেই শোকের ছায়া সাংবাদিক মহলে।