একই পরিবারে এতজনের এতগুলো পদ, তখন লজ্জা করেনি? শুভেন্দুকে পাল্টা Kunal Ghosh-এর

শুভেন্দুর তৃণমূল কংগ্রেস সম্পর্কে মন্তব্যের পর পাল্টা দিয়েছেন তিনি। 

Updated By: Dec 26, 2020, 02:25 PM IST
একই পরিবারে এতজনের এতগুলো পদ, তখন লজ্জা করেনি? শুভেন্দুকে পাল্টা Kunal Ghosh-এর

নিজস্ব প্রতিবেদন- একুশের নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে, ততই যেন আক্রমণাত্মক হয়ে উঠছেন রাজ্যের তৃণমূল ও বিজেপি নেতারা। একের পর এক গরমাগরম মন্তব্যে বাংলার রাজনীতির জমি উত্তপ্ত হয়ে উঠছে। এদিন সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া ব্যক্তিদের জন্য সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তৃণমূল কংগ্রেসকে চাঁচাছোলা ভাষায় আক্রমণ করেছেন শুভেন্দু অধিকারী। তিনি বলেছেন, ''২১ বছর ধরে এই পাটিটা করে আমি লজ্জিত। তৃণমূল কংগ্রেস এখন একটা কোম্পানিতে পরিণত হয়েছে।'' স্বাভাবিকভাবেই শুভেন্দুর এমন কাট কাট মন্তব্যের পর রাজ্য রাজনীতিতে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে।পুরনো দল সম্পর্কে শুভেন্দুর এমন উক্তি বিজেপি নেতাদের তুষ্ট করেছে বটে! কিন্তু তৃণমূলের নেতারা তাঁকে ছেড়ে কথা বলছেন না। 

গত কয়েকদিন ধরে বারবার শুভেন্দু অধিকারীর নাম না করেই নিশানা করছেন তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ। এদিনও শুভেন্দুর তৃণমূল কংগ্রেস সম্পর্কে মন্তব্যের পর পাল্টা দিয়েছেন তিনি। কুণাল ঘোষ এর আগে বলেছিলেন, শুভেন্দু অধিকারী যদি এতই বড় নেতা হন, তাহলে নিজের দল খুললেন না কেন! তিনি আরও বলেছিলেন, বিজেপি তাঁকে বিভিন্নভাবে ভয় দেখানোর চেষ্টা করলেও তিনি কোনমতেই ঝুঁকবেন না। 

আরও পড়ুন-  কোভিড-আবহে কল্পতরু উৎসব এবার বন্ধ কাশীপুর ও দক্ষিণেশ্বরে

এদিন সরাসরি শুভেন্দু অধিকারীকে তাক করেই কুণাল ঘোষ বলেছেন, ''একই পরিবারের এত জন এতগুলি পদের অধিকারী ছিলেন। তখন লজ্জা করেনি তাই না! এখন বিজেপিতে যোগ দিয়ে তৃণমূল সম্পর্কে এসব বলে কোনও লাভ হবে না। তৃণমূল কংগ্রেসের আসলে লজ্জা হচ্ছে এমন মানুষকে এতগুলো পদে দায়িত্ব দিয়ে রেখে। দিনের-পর-দিন এইসব মানুষেরা দলের ক্ষতি করেছে। বিজেপি দলটাকে আসলে অনেকে ওয়াশিং মেশিনের মতো ভাবছে। সেখানে গেলেই যাবতীয় কালিমা ধুয়ে স্বচ্ছ হওয়া যায়। কিন্তু মানুষ সবই জানে, সবই বোঝে। এসবের জবাব মানুষ সঠিক জায়গায় দেবে।''