প্রস্তাব দিনে ১২টি ট্রেন, শর্তসাপেক্ষে ৮ সেপ্টেম্বর থেকে চাকা গড়াবে মেট্রোর

করোনা মোকাবিলা করে কীভাবে মেট্রো চালানো হবে তা নিয়ে মঙ্গলবার কলকাতায় মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষ নিজেদের মধ্যেই উচ্চপর্যায়ের বৈঠক করেন। 

Updated By: Sep 2, 2020, 12:46 AM IST
প্রস্তাব দিনে ১২টি ট্রেন, শর্তসাপেক্ষে ৮ সেপ্টেম্বর থেকে চাকা গড়াবে মেট্রোর
ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন: আগামী ৮ সেপ্টেম্বর থেকে শহরে চালু হচ্ছে মেট্রো। আনলক-৪ ঘোষণার সময় কেন্দ্রীয় সরকার যে গাইডলাইন প্রকাশ করেছে তাতে বলা হয়েছে আগামী ৭ সেপ্টেম্বর থেকে দেশজুড়ে মেট্রো রেল চলবে। কিন্তু ৭ সেপ্টেম্বর এ রাজ্যে লকডাউন। তাই বাংলায় মেট্রো চলবে ৮ তারিখ থেকে। গত সপ্তাহে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যে মেট্রো চালানোর ক্ষেত্রে সম্মতি দিয়েছিলেন। তাতে সিলমোহর দেয় কেন্দ্রীয় সরকার।

করোনা মোকাবিলা করে কীভাবে মেট্রো চালানো হবে তা নিয়ে মঙ্গলবার কলকাতায় মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষ নিজেদের মধ্যেই উচ্চপর্যায়ের বৈঠক করেন। সমান্তরালভাবে দিল্লিতেও মেট্রো কর্তৃপক্ষ কেন্দ্রীয় নগরোন্নয়ন মন্ত্রকের আধিকারীকদের সঙ্গে বৈঠক করেন। মঙ্গলবার কলকাতায় মেট্রো কর্তৃপক্ষের বৈঠকে বেশকিছু প্রস্তাব আনা হয়েছে।

* যাঁদের স্মার্ট কার্ড আছে তারাই শুধু মেট্রোতে উঠতে পারেন।
*এই মুহূর্ত্বে নতুন  করে কোন স্মার্ট কার্ড ইস্যু করা হবে না।
*সোম থেকে শনিবার পর্যন্ত সকাল ৮ টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মেট্রো চালানো হবে।
* রবিবার কোনও মেট্রো চলবে না। 
*দিনে ১২টি ট্রেন চলবে।
* প্রতি যাত্রার শেষে  স্যানিটাইজেশন হবে।
* প্রতিটি স্টেশনের প্রধান গেটের সামনে সরকারি প্রতিনিধিরা থাকবেন। 
* নরকারি প্রতিনিধিরা লোক সংখ্যার উপর নজরদারি চালাবেন। 

এই প্রস্তাবগুলো দিল্লিতে পাঠানো হয়েছে। দিল্লিতে নগোরন্নয়ন মন্ত্রক এবং মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষের আলোচনায় এই প্রস্তাবগুলো দেখা হয়েছে। এরপর মেট্রো চালানো নিয়ে একটা রূপরেখা তৈরি করে দু তিনদিনের মধ্যেই রাজ্য সরকারের সঙ্গে বৈঠক করবে মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষ। সেই বৈঠকেই আগামী ৮ সেপ্টেম্বর থেকে মেট্রো চালানোর চূড়ান্ত রূপরেখা তৈরি হবে বলে মনে করা হচ্ছে। 

করোনা মোকাবিলা করার লক্ষ্যে  আপাতত অফিসযাত্রী এবং যারা নিয়মিত মেট্রোতে যাতায়াত করেন তাদেরই মেট্রো চড়ায় আগ্রাধিকার দেওয়া হবে। তাই স্মার্ট ছাড়া কেউ মেট্রো চড়তে পারবেন না। এ ক্ষেত্রে রাজ্য সরকার সম্মতি দেয় কিনা সেটাও দেখার বিষয়। তবে রাজ্য সরকার চাইছে করোনা মোকাবিলা করে দ্রুত জনজীবন স্বাভাবিক করে তুলতে।