সেরিব্রাল অ্যাটাকে মৃত্যু শর্বরী দত্তের, বলছে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট

বৃহস্পতিবার রাত ১১টা নাগার ব্রড স্ট্রিটে শর্বরীর বাড়ির শৌচাগার থেকে তাঁর দেহ উদ্ধার করা হয়। 

Updated By: Sep 18, 2020, 06:01 PM IST
সেরিব্রাল অ্যাটাকে মৃত্যু শর্বরী দত্তের, বলছে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট

নিজস্ব প্রতিবেদন: সেরিব্রাল অ্যাটাক। সে কারণেই শৌচালয়ে পড়ে গিয়েছিলেন শর্বরী দত্ত। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট বলছে,মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণের জেরে মৃত্যু হয়েছে ডিজাইনারের। 

বৃহস্পতিবার রাত ১১টা নাগার ব্রড স্ট্রিটে শর্বরীর বাড়ির শৌচাগার থেকে তাঁর দেহ উদ্ধার করা হয়। তাঁর দেহে ছিল আঘাতের চিহ্ন। কানের কাছে ছিল রক্তের দাগ। শর্বরীর মৃত্যু নিয়ে উঠেছিল একাধিক প্রশ্ন। তবে রহস্য উদঘাটন করল ময়না তদন্তের রিপোর্ট। রিপোর্টে বলা হয়েছে, রাতে নয়, বরং দুপুরে মৃত্যু হয়েছিল শর্বরী দত্তের। গতকাল, বৃহস্পতিবার দুপুরে সেরিব্রাল অ্যাটাক হয় তাঁর। এরপরই লুটিয়ে পড়েন তিনি। কিন্তু, শরীরে আঘাতের চিহ্ন আসল কীভাবে? ময়নাতদন্তের রিপোর্ট অনুযায়ী, সেরিব্রাল অ্যাটাকের পর পড়ে যান শর্বরী দত্ত। পড়ে যাওয়ার পর ফলেই তাঁর শরীরে একাধিক চোট লাগে। শরীরে ভিতরেও আঘাত লেগেছিল তাঁর। 

অতিসম্প্রতি শর্বরীদেবীর ভার্টিগো ধরা পড়েছিল, মাথা ঘুরত তাঁর। মধুমেহও ছিল। বেশ কয়েকবার মাথা ঘুরে পড়েও গিয়েছিলেন। ডিজাইনারের বন্ধু সংযুক্তা বসু জানিয়েছেন, স্বামীর মৃত্যুর পর শর্বরীদেবী একাকীত্বে ভুগতেন। ছেলে ও বৌমার সঙ্গে কিছু বিষয়ে মন কষাকষি চলছিল। ওষুধও ঠিকমতো খেতেন না।

আরও পড়ুন- আহমেদপুরের বাড়ির অংশ লিখে দেন ছেলের নামে, তারপরেও কীসের অশান্তি?