Suvendu Adhikari: 'গুজরাতিদের প্রতি বিদ্বেষের কারণ বোধগম্য নয়', শুভেন্দুর নিশানায় সাবিত্রী

মালদহের মানিকচকের তৃণমূল বিধায়ক সাবিত্রী মিত্র।  জনসভায় তাঁর ভাষণের একটি অংশ টুইট করেছেন শুভেন্দু অধিকারী। 'খারাপ কথা তো বলিনি', দাবি রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রীর।

Updated By: Nov 27, 2022, 11:45 PM IST
Suvendu Adhikari: 'গুজরাতিদের প্রতি বিদ্বেষের কারণ বোধগম্য নয়', শুভেন্দুর নিশানায় সাবিত্রী

মৌমিতা চক্রবর্তী: 'বাপু, প্যাটেলদের জন্মভূমির অপমান'। শুভেন্দু অধিকারীর নিশানায় এবার তৃণমূল বিধায়ক সাবিত্রী মিত্র। বিরোধী দলনেতার টুইট, 'গুজরাতিদের প্রতি বিদ্বেষের কারণ বোধগম্য নয়। গুজরাতের মানুষের বিশ্বাসঘাতক অ্যাখ্যা দিয়েছেন। দুর্ভাগ্যজনক'।  'শুভেন্দু অধিকারী কী বলছেন, তাঁর উত্তর দেব না', পাল্টা প্রতিক্রিয়া তৃণমূল বিধায়ক, রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী সাবিত্রী মিত্রের।

মালদহের মানিকচক বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক সাবিত্রী মিত্র। একসময়ে রাজ্যের মন্ত্রী ছিলেন। এদিন মালদহে একটি জনসভায় তাঁর বক্তব্যের একটি অংশের ভিডিয়ো টুইট করেন শুভেন্দু অধিকারী। কেন? ওই ভিডিয়োতে সাবিত্রী মিত্রকে বলতে শোনা গিয়েছে, 'স্বাধীনতা আন্দোলনে গুজরাতিদের কোনও ভূমিকা নেই। গুজরাতিরা ইংরেজদের অস্ত্র সরবরাহ করত'।

 

 

 

কী প্রতিক্রিয়া তৃণমূল বিধায়কের? জি ২৪ ঘণ্টাকে সাবিত্রী মিত্র বলেন, 'আমি যেটা বলেছি, নরেন্দ্র মোদী, নীরব মোদী, বিজয় মালিয়ার মতো লোক, যারা গুজরাতে বাস করে, স্বাধীনতা আন্দোলনে তাদের কোনও ভূমিকা ছিল না। ওরা ইংরেজদের পক্ষে ছিল। খারাপ কথা তো বলিনি'। তাঁর দাবি, 'গান্ধীজীকে অপমান করার ক্ষমতা আমার নেই। আমি তো একথা বলিনি, গুজরাতিরা আমাদের স্বাধীনতা আন্দোলন করেনি। স্বাধীনতা আন্দোলনে বিজেপির যাঁরা আছে, তাদের কোনও ভূমিকা ছিল না। নাম উল্লেখ করেই তো বলেছি। শুভেন্দু অধিকারী কী বলছেন, তার উত্তর দেব না'।

আরও পড়ুন: Santanu Sen: হাতে মেয়ের সার্টিফিকেট! 'একবারেই নিট পাস করেছে', সুকান্তকে কড়া জবাব শান্তনুর

এর আগে, নন্দীগ্রামে এক জনসভায় রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু সম্পর্কে বেফাঁস মন্তব্য করে বিপাকে পড়েছিলেন রাজ্য়ের মন্ত্রী অখিল গিরি। তিনি বলেছিলেন, 'কী রূপসী! কী দেখতে ভাল!আমরা রূপের বিচার করি না। তোমার রাষ্ট্রপতির চেয়ারকে আমরা সম্মান করি। কিন্তু তোমার রাষ্ট্রপতি কেমন দেখতে বাবা'? কেন এমন মন্তব্য'? সেই মন্তব্যকে হাতিয়ার করে পথে নেমেছিল বিজেপি। অখিল গিরির পদত্যাগের দাবিতে রাজ্যপালের কাছে সাক্ষাতের সময় চেয়েছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। 

এদিকে  যে ভাষায়  রাষ্ট্রপতির চেহারা নিয়ে মন্তব্য করেছেন অখিল গিরি, তার তীব্র নিন্দা করে তৃণমূলও। এমনকী, অখিল বিতর্কে ক্ষমা চান মুখ্যমন্ত্রী স্বয়ং। বলেন, 'আমরা রাষ্ট্রপতিকে সম্মান করি। হাইলি রেসপেক্টেড। অখিলের এমন মন্তব্য করা ঠিক হয়নি। অখিল এটা অন্যায় করেছে। আমি কনডেম করছি। আমি লজ্জিত। আমি ক্ষমা চাইছি'। জানান, 'অখিলকে দলের তরফে সতর্ক করা হয়েছে। দল ব্যবস্থা নেবে। যদি ভবিষ্যতে আবার এই ধরনের কিছু হয়, তাহলে দলের তরফে নিশ্চিতভাবেই ব্য়বস্থা নেওয়া হবে'। 

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)