তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে বিনিয়োগ বাড়াতে আইটি সেক্টরে বড়সড় কর ছাড়ের সিদ্ধান্ত রাজ সরকারের

গত চার বছরে তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে বিনিয়োগের স্বল্পতা নিয়ে চিন্তিত  রাজ্য। সম্ভবত সেই চ্যালেঞ্জের মোকাবিলায় IT সেক্টরকে উত্সাহ দিতে এবার বড়সড় কর ছাড়ের সিদ্ধান্ত নিল সরকার। ছ-বছরের পরিবর্তে তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে করছার মিলবে বারো বছর। গতকাল এই সংক্রান্ত বিল পাশ হয়েছে বিধানসভায়।গত সাড়ে চার বছরে কতটা লগ্নি এসেছে তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে? পরিসংখ্যানটা মোটেই আশাব্যঞ্জক নয় রাজ্যের জন্য। তার ওপর ইনফোসিসের বিনিয়োগ নিয়েও রয়ে গিয়েছে চূড়ান্ত অনিশ্চয়তা। এই পরিস্থিতিতে ঠিক কোন পথে হাঁটলে আইটি সেক্টরে আসবে বিনিয়োগ? তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রকে উত্সাহ দিতে এবার তাই কর ছাড়ের সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য সরকার। 

Updated By: Sep 29, 2015, 09:33 AM IST
তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে বিনিয়োগ বাড়াতে আইটি সেক্টরে বড়সড় কর ছাড়ের সিদ্ধান্ত রাজ সরকারের

ব্যুরো: গত চার বছরে তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে বিনিয়োগের স্বল্পতা নিয়ে চিন্তিত  রাজ্য। সম্ভবত সেই চ্যালেঞ্জের মোকাবিলায় IT সেক্টরকে উত্সাহ দিতে এবার বড়সড় কর ছাড়ের সিদ্ধান্ত নিল সরকার। ছ-বছরের পরিবর্তে তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে করছার মিলবে বারো বছর। গতকাল এই সংক্রান্ত বিল পাশ হয়েছে বিধানসভায়।গত সাড়ে চার বছরে কতটা লগ্নি এসেছে তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে? পরিসংখ্যানটা মোটেই আশাব্যঞ্জক নয় রাজ্যের জন্য। তার ওপর ইনফোসিসের বিনিয়োগ নিয়েও রয়ে গিয়েছে চূড়ান্ত অনিশ্চয়তা। এই পরিস্থিতিতে ঠিক কোন পথে হাঁটলে আইটি সেক্টরে আসবে বিনিয়োগ? তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রকে উত্সাহ দিতে এবার তাই কর ছাড়ের সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য সরকার। 

এতদিন আইটি সংস্থাগুলি ছ-বছরের জন্য কর ছাড় পেতো। 

এবার থেকে সেটাই হতে চলেছে বারো বছর। 
 
নবদিগন্তে নতুন করে যেসব তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা বিনিয়োগ করবে তাদের পাশাপাশি বর্তমান সংস্থাগুলিও এই সুবিধা পাবে। 

সোমবার এই সংক্রান্ত বিল পাশ হয়েছে বিধানসভায়। এখানেই শেষ নয়। নবদিগন্তে রাজ্যই নতুন বিল্ডিং তৈরি করে তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থাগুলিকে ভাড়া দেবে রাজ্য। তাহলে কি SEZ-এর পথে রাজ্যের এটা প্রথম পদক্ষেপ? এতদিন পর্যন্ত তো বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে তীব্র আপত্তি জানিয়ে এসেছেন মুখ্যমন্ত্রী। শিল্পমহলের সঙ্গে এনিয়ে টানাপোড়েনও রয়ে গিয়েছে SEZ নিয়ে। কিন্তু, সেই SEZ-এরই অন্যতম শর্ত করছাড়ের পথে এবার হাঁটছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকার।

এদিকে ভোটের দিকে তাকিয়ে আরও কয়েকটি নাগরিক সুবিধা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য। 
এতদিন কলকাতা পুরসভা এলাকায় নিজের সম্পত্তির কর নিজেই মূল্যায়ন করতে পারতেন বাসিন্দারা।এবার সেই সুবিধা গোটা রাজ্যে লাগু করতে উদ্যোগী হল সরকার।