ঘরে ফেরা পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য নয়া নির্দেশিকা জারি করল রাজ্য সরকার

গত কয়েকদিনে আচমকাই বেড়ে গিয়েছে দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। এর পিছনে কি মুখ্য কারণ পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরা? বিশেষজ্ঞরা তেমনটাই মনে করছেন। বিষয়টি ভাবাচ্ছে কেন্দ্র সরকারকেও।

Reported By: সুতপা সেন | Updated By: May 28, 2020, 06:38 PM IST
ঘরে ফেরা পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য নয়া নির্দেশিকা জারি করল রাজ্য সরকার

নিজস্ব প্রতিবেদন:  গত কয়েকদিনে আচমকাই বেড়ে গিয়েছে দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। এর পিছনে কি মুখ্য কারণ পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরা? বিশেষজ্ঞরা তেমনটাই মনে করছেন। বিষয়টি ভাবাচ্ছে কেন্দ্র সরকারকেও। তাই পশ্চিমবঙ্গ সরকার সেসব কথা মাথায় রেখেই পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য বিশেষ নির্দেশিকা জারি করল।
পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য বিশেষ নির্দেশিকা
এই নির্দেশিকায় মূলত পাঁচটি রাজ্য থেকে ফেরা পরিযায়ী শ্রমিকদের ওপর বিশেষ জোর দেওয়া হয়েছে
নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, মহারাষ্ট্র, গুজরাট, দিল্লি, মধ্যপ্রদেশ ও তামিলনাড়ু থেকে যে সব শ্রমিকরা বাংলায় ফিরবেন, তাঁদের অবশ্যভাবে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে।
বাকি রাজ্যগুলি থেকে যাঁরা ফিরবেন, তাঁদের পরীক্ষার পর যদি কোনও উপসর্গ ধরা না পড়ে, তাহলে তাঁরা হোম কোয়ারেন্টিনেই থাকতে পারবেন।

কেন এই পাঁচ রাজ্যের ওপর বিশেষ জোর?
পরিসংখ্যান বলছে, এই মুহূর্তে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা এই পাঁচ রাজ্যে লাফিয়ে বাড়ছে
মহারাষ্ট্রে আক্রান্ত ৫৬৯৪৮
মধ্যপ্রদেশ ৭২৬১
গুজরাট ১৫১৯৫
তামিলনাডু ১৮৫৪৫
দিল্লি ১৫২৫৭

স্পষ্টত বোঝাই যাচ্ছে, আক্রান্তের  সংখ্যার বিচারের অনেক এগিয়ে এই পাঁচ রাজ্য। সেক্ষেত্রে এই রাজ্যগুলি থেকে পরিযায়ী শ্রমিকরা ফিরলে সংক্রমণ বাড়ার আশঙ্কা থাকছে।
এদিন ক্যাবিনেট সচিবের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে বৈঠক করেন রাজ্যের মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা। বৈঠকে দেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়। আচমকাই শেষ কয়েকদিনে দেশের সর্বত্রই করোনা আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে বেড়েছে। সেক্ষেত্রে পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরাকেই বিশেষজ্ঞরা কারণ বলে মনে করছেন। এই পরিস্থিতি কী মোকাবিলা করা যায়, তা নিয়ে রাজ্যগুলির মতামত চেয়েছে কেন্দ্র।