close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

দিলীপ ঘোষের ওপর হতে পারে প্রাণঘাতী হামলা! গোয়েন্দা রিপোর্ট পেয়েই বাসভবন বদল করল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক

সুরক্ষিত নন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। বিদেশি এজেন্সির মাধ্যমে তাঁর ওপর প্রাণঘাতী হামলার ছক কষা হয়েছে। কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার রিপোর্টের পরই তড়িঘড়ি বদল করা হল দিলীপ ঘোষের বাসভবন।

Anjan Roy | Updated: Aug 22, 2019, 01:17 PM IST
 দিলীপ ঘোষের ওপর হতে পারে প্রাণঘাতী হামলা! গোয়েন্দা রিপোর্ট পেয়েই বাসভবন বদল করল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক

নিজস্ব প্রতিবেদন: সুরক্ষিত নন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। বিদেশি এজেন্সির মাধ্যমে তাঁর ওপর প্রাণঘাতী হামলার ছক কষা হয়েছে। কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার রিপোর্টের পরই তড়িঘড়ি বদল করা হল দিলীপ ঘোষের বাসভবন।

 

বুধবার রাত থেকেই দিলীপ ঘোষকে নতুন বাসভবনে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তাঁর নতূন বাসভবনে বাড়ানো হয়েছে নিরাপত্তা। কিছুদিন আগেই Y+ ক্যাটাগরি থেকেই Z ক্যাটাগরির নিরাপত্তা দেওয়া হয়েছে দিলীপ ঘোষকে। কিন্তু তারপরও কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার রিপোর্টে যথেষ্টই চিন্তিত বিজেপি শিবির। সূত্রের খবর,  কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের নির্দশেই দিলীপ ঘোষের বাড়ি পরিবর্তন করা হয়েছে।

দিলীপ ঘোষের নতুন বাসভবন

সম্প্রতি কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার তরফে একটি রিপোর্ট পেশ করা হয়। তাতে দেখা যায়, বিদেশি কোনও এজেন্সির মাধ্যমে দিলীপ ঘোষের ওপর হামলার ছক কষা হচ্ছে। তাঁকে শেষ করে দিতেই এই হামলা। রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পরই এক মুহূর্ত দেরি করেনি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। রাতারাতি বদল করা হয় দিলীপ ঘোষের বাসভবন, বাড়ানো হয় তাঁর নিরাপত্তা। সল্টলেকে যে বাড়িতে তিনি থাকতেন, সেখানে থেকে বুধবার রাতেই তাঁকে অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

আমি চলে গেলেও তৃণমূলের ক্ষতি হবে না: পার্থ চট্টোপাধ্যায়

প্রসঙ্গত, লোকসভা নির্বাচনের আগে থেকে পশ্চিমবঙ্গে যেভাবে বিজেপির উত্থান হয়েছে, তা যে দিলীপ ঘোষের ভূমিকা অনবদ্য, তা অস্বীকার করার জায়গা নেই। এই সময়ের মধ্যে বিভিন্ন জায়গায় দিলীপ ঘোষের কনভয়ের ওপরেও হামলা হয়েছে একাধিকবার। এরপরও তাঁর সুরক্ষা বাড়ানো হয়।  

দিলীপ ঘোষের নতুন বাসভবন

এব্যাপারে উগ্বিগ্ন দিলীপ ঘোষও। তিনি বলেন, “এতদিন যে বাড়িতে থাকতাম, সেখানে আমারা নিরাপত্তার জন্য ১৮ জন রক্ষী ছিলেন। তাঁরা আমার বাড়ির একতলায় থাকতেন, আমি দোতলায়। কিন্তু কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার রিপোর্ট পাওয়ার পর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক আমার নিরাপত্তার জন্য ৩০জন রক্ষী মোতায়েন করেছেন। এই বাড়িতে ওত লোকের থাকা সম্ভব নয়। তাই বাড়ি বদল করা হল।”