'বোনের বিয়ের ৩ লাখ টাকা মুক্তিপণে মেলে নিষ্কৃতি,' হাড়হিম করা অভিজ্ঞতা তিলজলার যুবকের

বাড়ি থেকে আরও টাকা না নিয়ে এলে প্রাণে মেরে ফেলা হবে বলে হুমকি দেয় অপহরণকারীরা।

Reported By: রণয় তেওয়ারি | Updated By: Feb 13, 2021, 01:26 PM IST
'বোনের বিয়ের ৩ লাখ টাকা মুক্তিপণে মেলে নিষ্কৃতি,' হাড়হিম করা অভিজ্ঞতা তিলজলার যুবকের
যে ট্যাক্সিতে অপহরণ (বাঁদিকে), মহম্মদ নাদিম (ডানদিকে)

নিজস্ব প্রতিবেদন : বোনের বিয়ের জন্য ৩ লক্ষ টাকা রাখা ছিল। মুক্তিপণ হিসেবে সেটা দেওয়ার পরই দুষ্কৃতীরা মহম্মদ নাদিমকে ছেড়ে দেয়। তিলজলা অপহরণ কাণ্ডে সামনে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য।

তিলজলা লেনের বাসিন্দা ২৯ বছরের মহম্মদ নাদিম পেশায় ওয়েব ডিজাইনার। শুক্রবার ভোরে বাইকে করে সল্টলেক থেকে বাড়ি ফিরছিলেন নাদিম। নাদিমের সঙ্গে তাঁর আরও এক বন্ধুও অন্য বাইকে ছিলেন। তিনিও বাড়ি ফিরছিলেন। নাদিম জানিয়েছেন, পর পর ৩ বার তাঁর বাইককে চেপে দেয় অভিযুক্ত ট্যাক্সিটি। এরপর সায়েন্স সিটির কাছে বোটিং ক্লাব এলাকায় তাঁকে ছুরি দেখিয়ে জোর করে ট্যাক্সিতে তোলে। হলুদ রঙের ওই ট্যাক্সিতে চালক সহ মোট ৪ জন ছিল। এরমধ্যে ৩ জনই পরিচিত নাদিমের।

নাদিম অভিযোগ করেছেন, গাড়ির মধ্যে তাঁর উপর অত্যাচার করে ওই দুষ্কৃতীরা। বন্দুক ঠেকিয়ে তাঁর কাছে থাকা ২১ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। একইসঙ্গে নাদিমকে হুমকি দেয়, বাড়ি থেকে আরও টাকা না নিয়ে এলে প্রাণে মেরে ফেলা হবে তাঁকে। এখন বোনের বিয়ের জন্য বাড়িতে ৩ লাখ টাকা রাখা ছিল। সেই পুরো টাকাটা দেওয়ার পরই নাদিমকে ছাড়ে ওই দুষ্কৃতীরা।

তবে ঘটনার কথা পুলিসকে জানালে প্রাণনাশের হুমকি দেয় দুষ্কৃতীদল। এরপরই এই ঘটনায় প্রগতি ময়দান থানায় অভিযোগ দায়ের করেন মহম্মদ নাদিম। ইতিমধ্যেই এই ঘটনায় সোহেল আলি ওরফে আমন ও শেখ আনসার আলি ওরফে নিয়াজ নামে ২ যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিস। বাকিদের খোঁজে চলছে তল্লাশি।

আরও পড়ুন, 'সাধারণ কর্মী ও প্রচারক থাকব', বিধানসভা ভোটে না দাঁড়ানোর ইচ্ছেপ্রকাশ কুণালের