চিনা সোশ্যাল মিডিয়ার এখন ‘মোস্ট ট্রেন্ডিং’ বিষয় ভারতে ৫৯টি অ্যাপের উপর নিষেধাজ্ঞা!

মঙ্গলবার চিনা সময় সকাল ১০টা পর্যন্ত ভারতে সে দেশের ৫৯টি অ্যাপ নিষিদ্ধ করা নিয়ে ৬ কোটি ৩০ লক্ষ বার আলোচিত হয়েছে।

Edited By: সুদীপ দে | Updated By: Jun 30, 2020, 03:09 PM IST
চিনা সোশ্যাল মিডিয়ার এখন ‘মোস্ট ট্রেন্ডিং’ বিষয় ভারতে ৫৯টি অ্যাপের উপর নিষেধাজ্ঞা!
—প্রতীকী চিত্র।

নিজস্ব প্রতিবেদন: TikTok, UC Browser, Helo-সহ ৫৯টি চিনা মোবাইল অ্যাপ নিষিদ্ধ করেছে কেন্দ্র! কেন্দ্রীয় তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রকের থেকে জানানো হয়েছে, এই ৫৯টি অ্যাপ দেশের সার্বভৌমত্ব, অখণ্ডতা, দেশের সুরক্ষার জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর! সে জন্যই এই অ্যাপগুলিকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

এ দিকে এই ৫৯টি চিনা অ্যাপের উপর রাতারাতি ভারতের এমন ‘ডিজিটাল সার্জিক্যাল স্ট্রাইক’ নিয়ে জোর চর্চা শুরু হয়েছে সে দেশের সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে! ৫৯টি অ্যাপের উপর ভারত সরকারের এই নিষেধাজ্ঞাই এখন চিনা সোশ্যাল মিডিয়ায় ‘মোস্ট ট্রেন্ডিং’ বিষয়।

মঙ্গলবার চিনা সময় সকাল ১০টা পর্যন্ত ভারতে সে দেশের ৫৯টি অ্যাপ নিষিদ্ধ করা নিয়ে ৬ কোটি ৩০ লক্ষ বার আলোচিত হয়েছে। চিনের ওয়েইবো (Weibo) প্ল্যাটফর্মে ভারতীয় পণ্য পাল্টা বয়কটের ডাক দিয়েছেন অনেক ইউজার। অনেকেই ভারত সরকারের এই সিদ্ধান্তের কড়া সমালোচনায় সরব হয়েছেন।

আরও পড়ুন: ব্যবহারকারীদের কোনও তথ্যই চিনা সরকারকে দেওয়া হয়নি, দাবি TikTok ইন্ডিয়ার প্রধানের

শুধু সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মেই নয়, চিনা সংবাদ মাধ্যমগুলিও ভারতে চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করার বিষয়ে সমালোচনায় সরব হয়েছে। চিনা বহুজাতিক ইন্টারনেট প্রযুক্তি সংস্থা ByteDance-এর জনপ্রিয় অ্যাপ TikTok-এর সারা বিশ্বের মোট ইউজারের ৩০ শতাংশই রয়েছে ভারতে। ভারতে গত এপ্রিল পর্যন্ত ১ কোটি ৬০ লক্ষ ইউজার ডাউনলোড করেছেন TikTok। TikTok ছাড়াও ভারতে অত্যন্ত জনপ্রিয় একাধিক চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ হয়ে গিয়েছে ভারতে। ফলে স্বাভাবিক ভাবেই ভারতের এই সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারছেন না চিনের অসংখ্য সাধারণ মানুষও।