ছাত্রদের মনোযোগ টানতে নগ্ন হয়ে বিদেশি ভাষা শিক্ষা দিচ্ছেন শিক্ষিকারা!

শিক্ষার আঙিনায় রাজনীতি আসা উচিত নাকি উচিত নয়, এই নিয়ে যখন তৃতীয়বিশ্বের দেশগুলোতে রয়েছে তর্ক, সেখানে লাতিন আমেরিকা বা ইউরোপ এগিয়ে গিয়েছে অন্য রাস্তায়। সেখানে শিক্ষার আঙিনায় ঢুকে পড়েছে নগ্নতা।

Updated By: Feb 4, 2016, 11:33 AM IST
ছাত্রদের মনোযোগ টানতে নগ্ন হয়ে বিদেশি ভাষা শিক্ষা দিচ্ছেন শিক্ষিকারা!

ওয়েব ডেস্ক: শিক্ষার আঙিনায় রাজনীতি আসা উচিত নাকি উচিত নয়, এই নিয়ে যখন তৃতীয়বিশ্বের দেশগুলোতে রয়েছে তর্ক, সেখানে লাতিন আমেরিকা বা ইউরোপ এগিয়ে গিয়েছে অন্য রাস্তায়। সেখানে শিক্ষার আঙিনায় ঢুকে পড়েছে নগ্নতা।

বিদেশি ভাষা শেখার আগ্রহ রয়েছে বিশ্বের নানা প্রান্তের মানুষের মধ্যে। ইদানিং এই বিদেশি  ভাষা শেখার জন্য শুধু দেশ বিদেশের ইনস্টিটিউটগুলোই নেই, রয়েছে একাধিক ওয়েবসাইট। যারা অনলাইন টিউটার হিসেবে বিদেশি ভাষা শেখান।ভেনিজুয়েলার একটি বিদেশি ভাষা শেখানোর নিউজ চ্যানেল রয়েছে। তার নাম চ্যানেল দেশনুদান্দো লাস নোটিসিয়াশ বা স্ট্রিপিং দ্য নিউজ। এরা তাঁদের কাছে যাতে আরও বেশি পরিমাণ ছাত্র বিদেশি ভাষা শিখতে আসে, সেইজন্য নতুন মোড়কে শিক্ষাদানের ব্যবস্থা করেছে।

অবশ্য মোড়কে না বলে মোড়ক ছাড়া বলাই ভালো। কারণ, এই অনলাইন টিচাররা বিদেশি ভাষা শিক্ষা দেওয়ার সময় পুরোপুরি নগ্ন হয়ে যাচ্ছেন। আর নগ্ন অবস্থাতেই পড়াচ্ছেন ছাত্রদের। এতে নাকি দুরকম সুবিধা। এক, এতে অনেক বেশ পড়ায় মন বসছে ছাত্রদের।তাঁদের মনোযোগ থাকছে পড়ায়। আর দুই, এই সব অনলাইন সাইটগুলোতে বেশি ছাত্ররা বিদেশি ভাষা শিখতে আসছেন! যাক, ভাষার নাম করে নগ্নতার ব্যবসা তাহলে ভালোই চলছে লাতিন আমেরিকায়। শুধু ভেনিজুয়েলাতেই নয়, এইরকম বিদেশি ভাষা শেখানোর জন্য় নগ্ন সুন্দরী শিক্ষিকাদের ব্যবহার করছে পেরু কিংবা বলিভিয়ার মতো দেশগুলোও।