‘দম না থাকলে লোক অজুহাত দেয়’, ইভিএমে দুর্নীতির অভিযোগ নিয়ে কংগ্রেসকে নিশানা মোদীর

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ইভিএম নিয়ে বিরোধীদের চ্যালেঞ্জ নিতে চেয়েছিল নির্বাচন কমিশন। কিন্তু এনসিপি ও সিপিএম ছাড়া আর কেউ নির্বাচন কমিশনে যায়নি

Updated By: Jun 26, 2019, 05:39 PM IST
‘দম না থাকলে লোক অজুহাত দেয়’, ইভিএমে দুর্নীতির অভিযোগ নিয়ে কংগ্রেসকে নিশানা মোদীর

নিজস্ব প্রতিবেদন: ইভিএম নিয়ে বিরোধীদের নিশানা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বুধবার রাজ্যসভায় তাঁর ভাষণে তিনি বলেন নিজেদের প্রতি আস্থা না থাকলে এরকমই অভিযোগ ওঠে।

আরও পড়ুন-ভারতী ঘোষকে নিরাপত্তা দিতে গিয়ে বিজেপি কর্মীদের হাতে নিগৃহীত মহিলা পুলিস কর্মী

সপা, বসপার পাশাপাশি ইভিএমের বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে কংগ্রেসেও। খোদ সোনিয়া গান্ধীও এনিয়ে প্রশ্ন খাড়া করেছেন। প্রধানমন্ত্রী এদিন বলেন, শূন্য থেকে দলকে এই জায়গায় এনেছি আমরা। বহু নির্বাচন হেরেছি। কখনও সিস্টেমকে দোষ দিইনি। আসলে নিজেদের ওপরে আস্থা না থাকলে এরকম দোষারোপ করা হয়। নিজেদের কোনও সমালোচনা নেই। এখানেই নেতৃত্বের পরীক্ষা।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ইভিএম নিয়ে অভিযোগ করা এখন রোগে পরিণতা হয়েছে। আগে ভোটে কতটা হিংসা হল তার চর্চা হতো। এখন খবর হয় ইভিএমে কত ভোট পড়ল। ১৯৭৭ সালে ইভিএম-এ ভোট করা নিয়ে প্রথম আলোচনা হয়। ১৯৯২ সালে এনিয়ে আইন হয়। এখনও প্রর্যন্ত ১৩০ নির্বাচন হয়েছে ইভিএমে। এরপরও এখন হেরে গিয়ে কান্নাকাটি করছে কংগ্রেস।

আরও পড়ুন-‘ভোটব্যাঙ্কের রাজনীতির জন্য নাগরিকপঞ্জী নয়; দেশের নিরাপত্তার বিষয়’, বিরোধীদের তুলোধনা মোদীর

অভিযোগ করলেও বিরোধীরা চ্যালেঞ্জের মুখোমুখী হতে চায়নি কংগ্রেস-সহ অন্যান্য বিরোধীরা। এমনটাই অভিযোগ করেন প্রধানমন্ত্রী। বলেন, ইভিএম নিয়ে বিরোধীদের চ্যালেঞ্জ নিতে চেয়েছিল নির্বাচন কমিশন। কিন্তু এনসিপি ও সিপিএম ছাড়া আর কেউ নির্বাচন কমিশনে যায়নি। তাও তারা গিয়ে জানতে চেয়েছিল, কীভাবে কাজ করে ইভিএম। ফলে শুধুমাত্র বিরোধিতা করার জন্য বিরোধিতা করা হচ্ছে।