গ্রেটার কৈলাসের একটি ল ফার্ম থেকে উদ্ধার হল সাড়ে ১৩ কোটির নোট!

কর্নাটকের পর এবার নয়াদিল্লি। গ্রেটার কৈলাসের একটি ল ফার্ম থেকে উদ্ধার হল সাড়ে তেরো কোটির নোট। এর মধ্যে আড়াই কোটির বেশি নতুন দুহাজারের নোট। কর্নাটকের চাল্লাকেরে হাওলা ব্যবসায়ীর বাথরুমে গোপন লকারের ধন সম্পদ দেখে চোখ কপালে উঠে ছিল। এবার পালা নয়াদিল্লির এক ল ফার্মের।গ্রেটার কৈলাসের T অ্যান্ড T ল ফার্মে হানা দিয়ে উদ্ধার হল তাড়া-তাড়া নোট। আয়কর দফতর সূত্রে খবর ওই ফার্মের মালিক  কিছুদিন আগেই ১২৫ কোটির হিসাব বহির্ভূত সম্পত্তি ঘোষণা করেন। তার পর থেকেই নজর রাখা হচ্ছিল তাঁর উপর। দিল্লি পুলিস সূত্রে খবর, উদ্ধার হওয়া টাকার মধ্যে ২কোটি ৬২লাখ  টাকা রয়েছে নতুন ২০০০-এর নোটে। ৭ কোটি ৭০ লাখ রয়েছে হাজারের নোটে। ১০০-র নোটে আছে ৩ কোটি ৬লাখ টাকা। বাকি ১১ লাখ টাকা রয়েছে ৫০-এর নোটে। ওই ল ফার্ম থেকে দুটি টাকা গোনার মেশিনও উদ্ধার হয়েছে।

Updated By: Dec 11, 2016, 09:34 PM IST
গ্রেটার কৈলাসের একটি ল ফার্ম থেকে উদ্ধার হল সাড়ে ১৩ কোটির নোট!

ওয়েব ডেস্ক: কর্নাটকের পর এবার নয়াদিল্লি। গ্রেটার কৈলাসের একটি ল ফার্ম থেকে উদ্ধার হল সাড়ে তেরো কোটির নোট। এর মধ্যে আড়াই কোটির বেশি নতুন দুহাজারের নোট। কর্নাটকের চাল্লাকেরে হাওলা ব্যবসায়ীর বাথরুমে গোপন লকারের ধন সম্পদ দেখে চোখ কপালে উঠে ছিল। এবার পালা নয়াদিল্লির এক ল ফার্মের।গ্রেটার কৈলাসের T অ্যান্ড T ল ফার্মে হানা দিয়ে উদ্ধার হল তাড়া-তাড়া নোট। আয়কর দফতর সূত্রে খবর ওই ফার্মের মালিক  কিছুদিন আগেই ১২৫ কোটির হিসাব বহির্ভূত সম্পত্তি ঘোষণা করেন। তার পর থেকেই নজর রাখা হচ্ছিল তাঁর উপর। দিল্লি পুলিস সূত্রে খবর, উদ্ধার হওয়া টাকার মধ্যে ২কোটি ৬২লাখ  টাকা রয়েছে নতুন ২০০০-এর নোটে। ৭ কোটি ৭০ লাখ রয়েছে হাজারের নোটে। ১০০-র নোটে আছে ৩ কোটি ৬লাখ টাকা। বাকি ১১ লাখ টাকা রয়েছে ৫০-এর নোটে। ওই ল ফার্ম থেকে দুটি টাকা গোনার মেশিনও উদ্ধার হয়েছে।

আরও পড়ুন বেড়াতে যাওয়ার প্ল্যান আছে? টিকিট কাটেননি? তাহলে বাজেটটা বেশি করুন!

পুলিস যখন গ্রেটার কৈলাসের এই অফিসে তল্লাসি চালায় তখন সব ঘর বন্ধ ছিল। শুধুমাত্র একজন কেয়ারটেকার ছিল অফিসে। পুলিসের অনুমান ক্যাশ গো ডাউন হিসেবেই এই অফিস ব্যবহার করা হত। ফার্মের মালিক রোহিত ট্যান্ডনের খোঁজ মেলেনি।

আরও পড়ুন  চুক্তির চিকিত্‍সকদের টাকার অঙ্ক ছাপিয়ে যাচ্ছে পুরো সময়ের ডাক্তারদের রোজগারকেই!