অযোধ্যা মামলায় আদালতের মধ্যস্থতাকারী হয়েও ভূমিপুজোয় ডাক পেলেন না রবিশঙ্কর

২০১৯-এ সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ ৫ সদস্যের সাংবিধানিক বেঞ্চ গঠন করেন। তৈরি হয় ৩ সদস্যের মধ্যস্ততাকারী প্যানেল। তাঁদের মধ্যে একজন ছিলেন রবিশঙ্কর। 

Updated By: Aug 5, 2020, 10:28 AM IST
অযোধ্যা মামলায় আদালতের মধ্যস্থতাকারী হয়েও ভূমিপুজোয় ডাক পেলেন না রবিশঙ্কর
ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন : বুধবার রাম মন্দিরের ভূমিপুজো। প্রায় ১৩৫ বছরের ইতিহাসে নতুন অধ্যায়ের সূচনা। ঐতিহাসিক এই দিনের সাক্ষী থাকতে এদিন অযোধ্যায় উপস্থিত থাকবেন বিজেপি, আরএসএস-এর হেভিওয়েট নেতৃত্ব। তবে, এই মামলায় আদালতের নিযুক্ত অন্যতম মধ্যস্থতাকারীরই নাম নেই আমন্ত্রিতদের তালিকায়। বুধবারের আমন্ত্রণ পত্রে নাম নেই শ্রী শ্রী রবিশঙ্করের। 

বিতর্কিত জমি বিবাদের নিষ্পত্তি করতে ২০১৭ সালে আলোচনার প্রচেষ্টা চালিয়েছিলেন রবিশঙ্কর। ২০১৯-এ সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ ৫ সদস্যের সাংবিধানিক বেঞ্চ গঠন করেন। তৈরি হয় ৩ সদস্যের মধ্যস্ততাকারী প্যানেল। এই প্যানেলে ছিলেন হিন্দু ও ইসলাম, দুই ধর্মের জনপ্রিয় ও অভিজ্ঞ প্রতিনিধিরা। তাঁদের মধ্যে একজন ছিলেন রবিশঙ্কর। তাঁরা জমি সংক্রান্ত বিরোধের নিষ্পত্তিতে দুই পক্ষকে এক টেবিলে আনার গুরুত্বপূর্ণ প্রচেষ্টা করেন। যদিও তাঁদের প্রচেষ্টা সম্পূর্ণ সফল কিনা তা বলা যাবে না। কিন্তু, অযোধ্যা ও রামমন্দিরের সঙ্গে যে তাঁদের নাম চিরকালের জন্য ইতিহাসের পাতায় লেখা থাকবে তা বলাই যায়।

আর এ হেন দিনে আমন্ত্রণই পাঠানো হল না অন্যতম মধ্যস্থতাকারী রবিশঙ্করকে। বেঙ্গালুরুতে আর্ট অব লিভিংয়ের মুখপাত্র জানান, কিছু কিছু সংবাদমাধ্যমে রবিশঙ্করের আমন্ত্রণের ভুয়ো খবর ছড়াচ্ছে। কিন্তু, তিনি ভূমিপুজোর কোনও আমন্ত্রণই পাননি। 

তবে শুধু তিনিই নন। শোনা যাচ্ছে যে আমন্ত্রিতদের তালিকায় নেই লালকৃষ্ণ আডবাণী এবং মুরলী মনোহর জোশীর মতো প্রবাদপ্রতিম বিজেপি নেতৃত্ব। এমন দুই নেতা যাঁদের সঙ্গে অযোধ্যার নাম ওতপ্রোতভাবে জড়িত। 

অনেকের মতে করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে আমন্ত্রিতদের সংখ্যা সীমিত রাখতেই তালিকায় এমন কাটছাঁট। আবার অনেকে এর মধ্যে পাচ্ছে রাজনৈতিক অভিসন্ধির গন্ধও। বুধবার ভূমিপুজোয় অংশ নেবেন ১৭৫ জন আমন্ত্রিত। ইতিমধ্যে দিল্লি থেকে রওনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। 

আরও পড়ুন : কোন পথে রাম মন্দির প্রতিষ্ঠা হতে চলেছে, পড়ুন ইতিহাসের পাতা উল্টে