মধ্যপ্রদেশ-রাজস্থান-ছত্তিসগঢ় বিধানসভা নির্বাচনে ভরাডুবি হবে বিজেপির! বলছে সমীক্ষা

বিধানসভা নির্বাচনে হারলেও লোকসভায় ভালো ফল করবে বিজেপি। এক্ষেত্রে দলকে রক্ষা করবে নরেন্দ্র মোদীর ব্যক্তিগত ইমেজ

Updated By: Aug 14, 2018, 02:54 PM IST
মধ্যপ্রদেশ-রাজস্থান-ছত্তিসগঢ় বিধানসভা নির্বাচনে ভরাডুবি হবে বিজেপির! বলছে সমীক্ষা

নিজস্ব প্রতিবেদন: বিজেপির জন্য ২০১৯ সাল খুব একটা সুখের নাও হতে পারে। আগামী বছরের শেষের দিকে মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান ও ছত্তিসগঢে় বিধানসভা নির্বাচন। আর সেখানেই সমস্যা। ওই তিন রাজ্যে হারতে পারে বিজেপি। এমনটাই আভাস দিল সি ভোটার ও এবিপি নিউজের সমীক্ষা। তবে লোকসভা নির্বাচনে ভালো ফল করবে গেরুয়া শিবির।

সোমবারই ‘ল কমিশনের এক বৈঠকে গিয়েছিলেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। সংবাদ মাধ্যমের খবর অনু‌যায়ী, বৈঠকে তিনি লোকসভা ও বিধানসভা নির্বাচন একই সঙ্গে করানোর ব্যাপারে সওয়াল করেছেন। রাজনৈতিক মহলের অনুমান বছরের আগেভাগে নির্বাচন করাতে পারলে গোবলয়ের রাজ্যগুলিতে ভালো ফল করতে পারে বিজেপি। সি ভোটার ও এবিপির সমীক্ষা অনু‌যায়ী মধ্যপ্রদেশ, ছত্তিসগঢ় ও রাজস্থানে দল বিধানসভা নির্বাচনে হারলেও লোকসভায় ভালো ফল করবে বিজেপি। এক্ষেত্রে দলকে রক্ষা করবে নরেন্দ্র মোদীর ব্যক্তিগত ইমেজ। খবর নিউজ ১৮ সূত্রে।

আরও পড়ুন-রাতেরবেলা লুকিয়ে প্রেমিকের বাড়িতে গিয়েছিল স্কুলছাত্রী, শিকার হল ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতার

সমীক্ষা অনু‌যায়ী, মধ্যপ্রদেশ বিধানসভায় ২৩০ আসনের মধ্যে কংগ্রেস তুলে নেবে ১১৭ আসন। রাজস্থানে বিদায় নেবে বসুন্ধরা রাজে সরকার। ২০০ আসনের বিধানসভায় কংগ্রেস পাবে ১৩০ আসন। অন্যদিকে, ছত্তিসগঢে় ৯০ আসনের মধ্যে রমণ সিংয়ের নেতৃত্বে বিজেপি পাবে মাত্র ৫৪টি আসন। অর্থাৎ ওই তিন রাজ্যে বিজেপি পাবে ‌যথাক্রমে ১০৬, ৩৩ ও ৫৭ আসন।

অন্যদিকে, দ্যা কুইন্ট-এর দাবি রাজস্থানে ২০০ আসনের মধ্যে কংগ্রেস পেতে পারে ১৩০টি আসন। বিজেপি পেতে পারে ৫৭ আসন। মধ্যপ্রদেশে কংগ্রেস পেতে পারে ১১৭ আসন। বিজেপি পেতে পারে ১০৬ আসন। অন্যদিকে, ছত্তিসগঢে. মতো রাজ্যে বিজেপির ঝুলিতে আসবে ৩৩ আসন। কংগ্রেস পেতে পারে ৫৪ আসন। সমীক্ষার জন্য মতামত নেওয়া হয়েছিল ২৮ হাজার মানুষের।

উল্লেখ্য, এবছর রাজস্থানে ৪টি বিধানসভা ও ২টি লোকসভা আসনের উপনির্বাচনে গেরুয়া শিবিরকে ধরাশায়ী করেছে কংগ্রেস। ফলে মুখ্যমন্ত্রী বসুন্ধরা রাজের বিরুদ্ধে ক্ষোভ ক্রমশ বাড়ছে। রবিবার বসুন্ধরার কেন্দ্রে দলের এক প্রভাবশালী নেতাই তাঁর বিরুদ্ধে একটি বাইক র‍্যালি বের করেন। সমীক্ষা অনু‌যায়ী কংগ্রেসের ক্ষেত্রে মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে রয়েছেন অশোক গেহলট। তাঁর পক্ষে জনমত ৪১ শতাংশে।। অন্যদিকে শচিন পাইলটের পক্ষে জনতার রায় ১৮ শতাংশের।
আরও পড়ুন-ফেসবুক-হোয়াটসঅ্যাপে ব্যস্ত নার্স! অ্যান্টি-ভেনম না পেয়ে মৃত্যু যুবকের

মধ্যপ্রদেশের ক্ষেত্রে কিছুটা ভালো খবর রয়েছে সমীক্ষা অনু‌যায়ী। বিধানসভা নির্বাচনে খারাপ ফল করলেও লোকসভা নির্বাচনে ৪৬ শতাংশ মানুষ সমর্থন করেছেন বিজেপিকে। সেখানে ৩৯ শাতংশ ভোটারের সমর্থন রয়েছে কংগ্রেসের দিকে। প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ৫৪ শতংশ মানুষের রায় রয়েছে মোদীর পক্ষে।

লোকসভা নির্বাচনে ছত্তিসগঢে.র ৪৬ শতাংশ মানুষ বিজেপির পক্ষে রয়েছে বলে দাবি সমীক্ষায়। কংগ্রেসের পক্ষে ৩৬ শতাংশ। ৫৬ শতাংশ মানুষ চান মোদীই থাকুন প্রধানমন্ত্রী।