ভুয়ো খবরের জন্য শ্রমিকদের দুর্দশা, TMC MP-র প্রশ্নে দায় ঝাড়ল কেন্দ্র

চলতি বছর ২৫ মার্চ লকডাউন ঘোষণার আগে পরিযায়ী শ্রমিকদের স্বার্থরক্ষায় কী কী ব্যবস্থা নিয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকার?

Updated By: Sep 15, 2020, 11:29 PM IST
ভুয়ো খবরের জন্য শ্রমিকদের দুর্দশা, TMC MP-র প্রশ্নে দায় ঝাড়ল কেন্দ্র

নিজস্ব প্রতিবেদন: পরিযায়ী শ্রমিকদের দুর্দশার জন্য দায়ভার কার্যত 'ভুয়ো খবর'-এর উপরে চাপাল কেন্দ্রীয় সরকার। গতকাল, সোমবার কেন্দ্র জানিয়েছিল, পরিযায়ী শ্রমিকদের মৃত্যু নিয়ে কোনও পরিসংখ্যান নেই, সে কারণে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার প্রশ্নই ওঠে না। এদিন আবার ভুয়ো খবরের তত্ত্ব খাঁড়া করল সরকার।

চলতি বছর ২৫ মার্চ লকডাউন ঘোষণার আগে পরিযায়ী শ্রমিকদের স্বার্থরক্ষায় কী কী ব্যবস্থা নিয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকার? কেন হাজার হাজার শ্রমিককে হেঁটৈ ঘরে পৌঁছতে হল? কেন পথে মৃত্যু হল একাধিক শ্রমিকের? এদিন সংসদে জানতে চেয়েছিলেন তৃণমূল সাংসদ মালা রায়। লিখিত জবাব দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই। তিনি জানিয়েছেন, লকডাউনে ভুয়ো খবর ছড়ানো হয়েছিল। আর সে কারণেই পরিযায়ী শ্রমিকরা উদ্বেগ পড়েছিলেন। খাবার, পানীয় জল, স্বাস্থ্য পরিষেবা, আশ্রয়ে ব্যবস্থা নিয়ে আশঙ্কিত হয়ে পড়েছিলেন তাঁরা। যদিও বিষয়টিতে নজর দিয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকার। কোনও নাগরিকই যাতে জল, খাবার ও অন্যান্য সুযোগসুবিধা থেকে বঞ্চিত না হন, তা সুনিশ্চিত করা হয়েছিল।

রাই আরও জানিয়েছেন, ২৮ মার্চ রাজ্যের বিপর্যয় মোকাবিলা তহবিল ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকার। যাতে পরিযায়ী শ্রমিক ও গৃহহীনদের জন্য খাদ্য, পোশাক ও চিকিৎসার ব্যবস্থা করা যায়। ৩ এপ্রিল ১১,০৯২ কোটি টাকার অগ্রিমও বরাদ্দ করা হয়েছিল। পরিযায়ী শ্রমিকদের মৃত্যু নিয়ে কোনও পরিসংখ্যান নেই বলে এদিনও স্পষ্ট করে দিয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। 

আরও পড়ুন- শোধরাল না পাকিস্তান, ম্যাপে ঢোকাল কাশ্মীর-গুজরাট, SCO বৈঠক ছাড়ল ভারত