জাল নথির কারসাজিতে আইডিবিআই ব্যাঙ্ক থেকে ৭৭২ কোটি টাকার ঋণ প্রতারণা!

২০০৯ থেকে ২০১৩-এর মধ্যে মঞ্জুর হওয়া এই ঋণগুলিতে পদ্ধতিগত ও অর্থ প্রদানের ক্ষেত্রে কারচুপি হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। গোটা ঘটনাতে আইডিবিআই-এর দুই  আধিকারিক যুক্ত ছিল বলে অভিযোগ।

Updated By: Mar 28, 2018, 04:55 PM IST
জাল নথির কারসাজিতে আইডিবিআই ব্যাঙ্ক থেকে ৭৭২ কোটি টাকার ঋণ প্রতারণা!

নিজস্ব প্রতিবেদন: পঞ্জাব ন্যাশানাল ব্যাঙ্কের পর এবার জাল নথি দিয়ে ৭৭২ কোটি টাকার ঋণ প্রতারণার কথা প্রকাশ্যে আনল আইডিবিআই ব্যাঙ্ক। ব্যাঙ্কের তরফে জানানো হয়েছে, অন্ধ্রপ্রদেশ ও তেলেঙ্গানার পাঁচটি শাখা থেকে জাল নথির মাধ্যমে এই ঋণ নেওয়া হয়েছে। এই ঘোষণার পরই ব্যাঙ্কটির শেয়ারে পতন শুরু হয়েছে।

২০০৯ থেকে ২০১৩-এর মধ্যে মঞ্জুর হওয়া এই ঋণগুলিতে পদ্ধতিগত ও অর্থ প্রদানের ক্ষেত্রে কারচুপি হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। গোটা ঘটনাতে আইডিবিআই-এর দুই  আধিকারিক যুক্ত ছিল বলে অভিযোগ। অভিযুক্ত ২ ব্যাঙ্ককর্মীর মধ্যে একজনের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যে ব্যবস্থা নিয়েছে ব্যাঙ্কটি, অপর কর্মী বর্তমানে অবসরপ্রাপ্ত।

আরও পড়ুন- প্যান-আধার সং‌যোগের সময়সীমা বেড়ে হল ৩০ জুন

মূলত, মত্স শিল্পের নামে লিজের জাল নথি ও ভুয়ো পুকুর দেখিয়ে এই ঋণগুলি নেওয়া হয়েছিল। ব্যবসায়িক ক্ষেত্রে এ ধরনের ঋণ পেতে গেলে নিয়মানুযায়ী যে (ঋণের অর্থের চেয়ে বেশী মূল্যের) সম্পদ বন্ধক রাখার নিয়ম, সেখানেও কারচুপি ধরা পড়েছে। ইতিমধ্যে পাঁচটি শাখার মধ্যে দুটি শাখার (বাশীরবাগ ও গুন্টুর শাখা) বিরুদ্ধে জমা পড়া অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত হাতে নিয়েছে সিবিআই।

আরও পড়ুন- রেলের ৯০ হাজার শূন্যপদের জন্য আবেদনপত্র জমা পড়ল ২ কোটি