বায়ুসেনার নিখোঁজ AN-32 ঘিরে দানা বাঁধছে রহস্য!

বায়ুসেনার অত্যাধুনিক পণ্যবাহী বিমান AN-32। এই বিমানে রয়েছে একাধিক উন্নত প্রযুক্তি। এমন একটা বিমান নিখোঁজ হয়ে যাওয়ায় উঠছে একাধিক প্রশ্ন। AN-32  বিমানে রয়েছে ওয়েদার রেডার।  আবহাওয়া খারাপ থাকলে তা আগাম জানাবে এই রেডার। প্রশ্ন উঠছে, ওয়েদার রেডার থাকা সত্ত্বেও কেন খারাপ আবহাওয়ায় পড়ল বিমান? বিমানে রয়েছে আপত্‍কালীন সঙ্কেত ব্যবস্থাও। অথচ কন্ট্রোলে পৌঁছায়নি কোনও সঙ্কেত!  ফলে সব মিলিয়ে এই বিমান নিখোঁজ হওয়া ঘিরে একাধিক প্রশ্নের উত্তর মিলছে না।

Updated By: Jul 22, 2016, 07:07 PM IST
বায়ুসেনার নিখোঁজ AN-32 ঘিরে দানা বাঁধছে রহস্য!

ওয়েব ডেস্ক : বায়ুসেনার অত্যাধুনিক পণ্যবাহী বিমান AN-32। এই বিমানে রয়েছে একাধিক উন্নত প্রযুক্তি। এমন একটা বিমান নিখোঁজ হয়ে যাওয়ায় উঠছে একাধিক প্রশ্ন। AN-32  বিমানে রয়েছে ওয়েদার রেডার।  আবহাওয়া খারাপ থাকলে তা আগাম জানাবে এই রেডার। প্রশ্ন উঠছে, ওয়েদার রেডার থাকা সত্ত্বেও কেন খারাপ আবহাওয়ায় পড়ল বিমান? বিমানে রয়েছে আপত্‍কালীন সঙ্কেত ব্যবস্থাও। অথচ কন্ট্রোলে পৌঁছায়নি কোনও সঙ্কেত!  ফলে সব মিলিয়ে এই বিমান নিখোঁজ হওয়া ঘিরে একাধিক প্রশ্নের উত্তর মিলছে না।

চেন্নাইয়ের তাম্বারাম বায়ুসেনা ঘাঁটি থেকে বুধবার সকাল সাড়ে আটটায় টেক অফ করে বায়ুসেনার পণ্যবাহী বিমান AN-32। ১৩৭৫ কিলোমিটার পথ পেরিয়ে বেলা সাড়ে এগারোটায় পোর্ট ব্লেয়ার পৌঁছানোর কথা ছিল। কিন্তু আকাশে ওড়ার ষোলো মিনিট পর পাইলটের সঙ্গে শেষবার যোগাযোগ হয়। সকাল ৯টা ১২ মিনিটে রেডার থেকে হারিয়ে যায় AN-32। তখন তেইশ হাজার ফুট উচ্চতায় উড়ছিল বিমানটি। বঙ্গোপসাগরের ওপর তেইশ হাজার ফুট উচ্চতায় সেইসময় আবহাওয়া খারাপ ছিল বলে জানা গেছে।

এদিকে একবার তেল ভরার পর টানা সাড়ে পাঁচ ঘণ্টা উড়তে পারে AN-32। ফলে, দুর্ঘটনার পর বহুক্ষণ পেরিয়ে যাওয়ায় আশঙ্কা ক্রমশ বাড়ছে। নিখোঁজ বিমানে ছিলেন ৬ জন বিমানকর্মী। এছাড়াও ছিলেন বায়ুসেনার ১১ জন, সেনার ২ জন, নৌবাহিনীর ৯ জন এবং উপকূলরক্ষী বাহিনীর ১ জন কর্মী। মোট ২৯ জন যাত্রী। নিখোঁজ বিমানের খোঁজে তল্লাসি চালাচ্ছে নৌবাহিনীর P81 এবং ডর্নিয়ের বিমান। বঙ্গোপসাগরে খোঁজ চালাচ্ছে নৌবাহিনীর ৪টি যুদ্ধজাহাজ। বঙ্গোপসাগরে তল্লাসি চালাচ্ছে সাবমেরিন। প্রতিরক্ষামন্ত্রী মনোহর পরিক্কর জানিয়েছেন সবরকম চেষ্টা চালানো হচ্ছে।