ভিডিয়ো: কাশ্মীরে সীমান্তে গোলাগুলি পাকিস্তানের, শিশুদের উদ্ধার করল ভারতীয় সেনা

শনিবার জম্মু-কাশ্মীরের পুঞ্চের বালাকোট ও মেন্দর সেক্টরে বিনা প্ররোচনায় অস্ত্রবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে পাক সেনা। 

Updated By: Sep 14, 2019, 11:37 PM IST
ভিডিয়ো: কাশ্মীরে সীমান্তে গোলাগুলি পাকিস্তানের, শিশুদের উদ্ধার করল ভারতীয় সেনা

নিজস্ব প্রতিবেদন: কাশ্মীর থেকে ৩৭০ অনুচ্ছেদ প্রত্যাহার করেছে ভারত সরকার। আন্তর্জাতিক মহলে আবেদন-নিবেদন করেও সাড়া পায়নি পাকিস্তান। সেই হতাশায় সীমান্তে বিনা প্ররোচনায় গোলগুলি ছুড়তে শুরু করেছে পাক সেনা। শনিবার পাক গোলাগুলির মধ্যে পড়ে যায় কাশ্মীরের ২০ জন পড়ুয়া। অত্যন্ত তত্পড়ায় তাদের রক্ষা করেছে ভারতীয় সেনা। 

শনিবার জম্মু-কাশ্মীরের পুঞ্চের বালাকোট ও মেন্দর সেক্টরে বিনা প্ররোচনায় অস্ত্রবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে পাক সেনা। ভারতের সীমান্ত লক্ষ্য করে গোলাগুলি ছুড়তে থাকে তারা। তার পাল্টা জবাব দিয়েছে ভারতীয় সেনা। শুধু তাই নয়, স্কুল লক্ষ্য করে গুলি চালিয়েছে পাকিস্তান। স্কুলের মধ্যে আটকে পড়েছিল পড়ুয়ারা। তবে শিশুদের আঘাত লাগেনি। তাদের উদ্ধার করে বুলেটপ্রুফ গাড়িতে নিরাপদ স্থানে পৌঁছে দিয়েছে ভারতীয় সেনা। পাকিস্তানের গোলাগুলিতে সীমান্তবর্তী গ্রামের ঘরবাড়ি ও দুটি গাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। 

আরও পড়ুন- খতম 'জিহাদের যুবরাজ' লাদেনপুত্র হামজা, নিশ্চিত করলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প  

জম্মু-কাশ্মীর থেকে ৩৭০ অনুচ্ছেদ প্রত্যাহারের পর থেকে আন্তর্জাতিকস্তরে ভারতকে বিপাকে ফেলার চেষ্টা চালিয়ে গিয়েছে পাকিস্তান। কিন্তু কোনও জায়গাতেই সাফল্য পায়নি ইসলামাবাদ। আর সে কারণে অশান্তি ও হিংসা ছড়াতে চাইছে ইমরানের সরকার। পাকিস্তানের অভ্যন্তরীণ মন্ত্রী এজাজ আহমেদও স্বীকার করে নিয়েছেন, কাশ্মীর নিয়ে পাকিস্তান আন্তর্জাতিক মহলে জোর ধাক্কা খেয়েছে। এর পিছনে দায়ী তাদের ভাবমূর্তি। পাকিস্তানকে দায়িত্বপূর্ণ দেশের চোখে দেখা হয় না। প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে কাঠগড়ায় তুলেছেন এজাজ আহমেদ। তাঁর মতে, আন্তর্জাতিকস্তরে কেউ আমাদের কথায় বিশ্বাস করেনি। আমরা বলেছিলাম, জম্মু-কাশ্মীরে কারফিউ জারি করেছে ভারত। সেখানকার মানুষ ওষুধও পাচ্ছেন না। কিন্তু কেউ বিশ্বাস করল না। ভারতের উপরে ভরসা করল তারা। মোল্লাতন্ত্রই ধ্বংস করেছে দেশকে। পাকিস্তানের ভাবমূর্তি খারাপ করেছে। লোকেরা ভাবে, আমরা দায়িত্বপূর্ণ দেশ নই। পাকিস্তানের আত্মমন্থন করা উচিত বলেও মনে করেন পাকিস্তানের অভ্যন্তরীণ মন্ত্রী।  

আরও পড়ুন- বন্দুক হাতে তুলে নেওয়ার সময় চলে এসেছে, কাশ্মীরিদের উস্কানি ইমরান খানের