জোড়হাতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে অক্সিজেন সংকট থেকে মুক্তি চাইলেন কেজরিওয়াল

করোনার দ্বিতীয়  ভয়াল ঢেউয়ের সংকট কাটিয়ে ওঠার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে রাস্তা দেখানোর অনুরোধ জানিয়েছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী।

Updated By: Apr 23, 2021, 04:02 PM IST
জোড়হাতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে অক্সিজেন সংকট থেকে মুক্তি চাইলেন কেজরিওয়াল

নিজস্ব প্রতিবেদন- দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল (Arvind Kejriwal) জোড়হাতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে অক্সিজেন সংকট থেকে মুক্তি চাইলেন। বললেন, ‘অক্সিজেন সরবরাহের ব্যবস্থা করুন। দিল্লির মুখে অক্সিজেন ট্যাঙ্ক নিয়ে আসা গাড়িগুলোকে শহরের ঢোকার পথে যাতে অন্য রাজ্য না আটকায়, তার ব্যবস্থা নিন।’ সরকারি প্রচারমাধ্যমে (Doordarshan) সরাসরি এই কথোপকথন দেখানো হয়। দেখা যায়, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী কাতর স্বরে প্রার্থনা করেন, ‘‘দিল্লিতে অক্সিজেনের অভাব সাংঘাতিক। রোগীরা শুধু মাত্র অক্সিজেনের (Oxygen) অভাবে মারা যাচ্ছেন। আপনি দ্রুত পদক্ষেপ করুন। না হলে দিল্লির পরিস্থিতি ভয়ঙ্কর হয়ে উঠবে।’’ পশ্চিমবঙ্গ এবং ওড়িশা থেকে আকাশপথে অক্সিজেন আনার ব্যবস্থা করতেও বলেন কেজরিওয়াল।

করোনার দ্বিতীয়  ভয়াল ঢেউয়ের সংকট কাটিয়ে ওঠার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে রাস্তা দেখানোর অনুরোধ জানিয়েছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী। পাশাপাশি তিনি আরও জানতে চান, দিল্লির জন্য আসা অক্সিজেন অন্য রাজ্য আটকে দিলে, তার মোকাবিলা কীভাবে হবে।

শুক্রবার দেশের সবথেকে বেশি আক্রান্ত ১০ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের নিয়ে বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)। সেই বৈঠকেই গোটা দেশে অক্সিজেনের সংকট প্রবলভাবে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে উঠে আসে। মুখ্যমন্ত্রীদের মধ্যে সবথেকে সরব ছিলেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল। কারণ দিল্লির অবস্থা খুবই খারাপ বলে মনে করা হচ্ছে। শুধুমাত্র দিল্লিতেই গত ২৪ ঘণ্টায় ২৫ জন মারা গিয়েছেন শুধু অক্সিজেনের অভাবে। এক দিনে ২৬ হাজারের বেশি সংখ্যায় মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন দিল্লিতে। দেশের আক্রান্তও শুক্রবার ৩ লক্ষ ৩২ হাজার পার করেছে। এই পরিস্থিতিতে অক্সিজেনের সংকট মেটাতে প্রধানমন্ত্রীকে পদক্ষেপ নিতে আর্জি জানালেন কেজরিওয়াল।
সকাল ১১.৫৮য় এই ঘটনা দূরদর্শনে দেখানোর ঠিক পরপরই সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘুরে বেড়াচ্ছে সেই খতিয়ান, য়াতে বলা হয়েছে ঠিক কী কী ব্যবস্থা দিল্লির জন্য নেওয়া হয়েছিল। বিজেপি সূত্র থেকে জানা যাচ্ছে:

১. ICU বেডের সংখ্যায় বৃদ্ধি

  • . সর্দার বল্লভভাই প্যাটেল কোভিড হাসপাতালে পিএম কেয়ারস ফান্ডের (PM Cares Fund) আওতায় ৫০০ শয্যা পুনরায় চালু করা হয়েছে। এরমধ্যে ১৯ এপ্রিল ২০২১ থেকে ২৫০ টি শয্যা চালুই ছিল। আরও ২৫০ শয্যা ২৩ এপ্রিল সন্ধ্যার মধ্যেই চালু হতে চলেছে।
  • . ছত্তরপুরের এসপিসিসিসিতে (SPCCC, Chhattarpur) ৫০০ শয্যার কোভিড হাসপাতালের জন্য উপযুক্ত পরিমাণে চিকিৎসক ও নার্সের ব্যবস্থা করা হয়েছে।
  • . দিল্লিতে কেন্দ্রীয় সরকারের হাসপাতালগুলিতে কোভিড বেডের (Covid beds) সংখ্যা ১০৯০ থেকে বাড়িয়ে ৩৮০০ করা হয়েছে। এরসঙ্গে যুক্ত কার হয়েছে ৭৩০ টি আই সিইউ বেড।

২. অক্সিজেন সরবরাহে বৃদ্ধি

  • . শুধুমাত্র দিল্লি শহরের জন্যই অক্সিজেন জোগানের পরিমাণ ৩৭৮ মেট্রিক টন থেকে বাড়িয়ে ৪৮০ মেট্রিক টন করা হয়েছে।
  • . অন্য রাজ্য থেকে অক্সিজেন সরবরাহে রাস্তায় যাতে কোনও সমস্যা তৈরি না হয়, তারও ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।
  • এত সবের পরেও দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী পরিস্থিতি মোকাবিলায় কাজ করতে অক্ষম হলে তাঁকেই এর দায় নিতে হবে, বলে মনে করছে বিজেপি।