লোকমান্য তিলক 'সন্ত্রাসবাদের জনক', পড়ানো হচ্ছে পড়ুয়াদের

পাঠ্যবইয়ে এই ধরনের শব্দচয়নের নিন্দা শিক্ষামহলে। 

Updated By: May 12, 2018, 03:45 PM IST
লোকমান্য তিলক 'সন্ত্রাসবাদের জনক', পড়ানো হচ্ছে পড়ুয়াদের

নিজস্ব প্রতিবেদন: স্বাধীনতা সংগ্রামী বাল গঙ্গাধর তিলককে 'সন্ত্রাসবাদের জনক' আখ্যা দেওয়া হল অষ্টমশ্রেণির পাঠ্যবইয়ে। আর তা শেখানো হচ্ছে রাজস্থানের উচ্চমাধ্যমিক বোর্ডের দ্বারা স্বীকৃত একটি বেসরকারি উচ্চমাধ্যমিক স্কুলের পড়ুয়াদের। সমাজবিজ্ঞানের এই বইয়ের প্রকাশক মথুরার একটি সংস্থা। 

পাঠ্যবইয়ের ২২ নম্বর অধ্যায়ের ২৬৭ পাতায় লেখা রয়েছে, 'জাতীয় আন্দোলনের পথ দেখিয়েছিলেন তিলক। তাই তাঁকে সন্ত্রাসবাদের জনক বলা হয়। ব্রিটিশদের কাছে অনুনয় করে স্বাধীনতালাভে বিশ্বাসী ছিলেন না বাল গঙ্গাধর তিলক। শিবাজি ও গণপতি উত্সবের মাধ্যমে সচেতনতা ছড়িয়েছিলে তিনি। সাধারণের মধ্যে স্বাধীনতার মন্ত্র ছড়িয়ে দিয়েছিলেন তিলক। সেজন্য ব্রিটিশদের চোখের বালি হয়ে উঠেছিলেন।'

পাঠ্যবইয়ে এই ধরনের শব্দচয়নের নিন্দা করেছেন বেসরকারি স্কুল অ্যাসোসিয়েশনের ডিরেকটর কৈলাস শর্মা। তাঁর কথায়, ''লোকমান্য তিলককে 'সন্ত্রাসবাদের জনক' বলা অত্যন্ত নিন্দাজনক। এই ধরনের স্পর্শকাতর বিষয়ে লেখার আগে ঐতিহাসিকদের আলোচনা করে নেওয়া উচিত বলে মনে করি।''  

পাঠ্যবইয়ের বিতর্কিত অংশটি তুলে ধরে রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রীকে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি করেছেন কংগ্রেস নেতা দিগ্বিজয় সিং। 

গতবছর স্কুলপাঠ্যে মহাত্মা গান্ধী ও নেহরুর চেয়ে সাভারকরকে বেশি গুরুত্ব দেওয়া নিয়ে বিতর্কে জড়িয়েছিল রাজস্থানের বিজেপি সরকার।

আরও পড়ুন- গুগল ও ওয়াইফাই বদলে দিয়েছে জীবন, সাফল্যের কাহিনি শোনালেন কেরলের কুলি