অযোধ্যা রায় পুনর্বিবেচনার আবেদনের সিদ্ধান্ত নিয়ে সমাজে বিভেদ সৃষ্টি করতে চাইছে ‘ল বোর্ড: নকভি

নকভি বলেন, গণতন্ত্রে সবারই আদালতে যাওয়ার অধিকার রয়েছে। কিন্তু সুপ্রিম কোর্টের রায়ে অযোধ্য মামলার ফয়সলা হয়ে গিয়েছে

Updated By: Dec 1, 2019, 01:35 PM IST
অযোধ্যা রায় পুনর্বিবেচনার আবেদনের সিদ্ধান্ত নিয়ে সমাজে বিভেদ সৃষ্টি করতে চাইছে ‘ল বোর্ড: নকভি

নিজস্ব প্রতিবেদন: অযোধ্য রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে অল ইন্ডিয়া পার্সোন্যাল ‘ল বোর্ড ও জমিয়তে উলেমায়ে হিন্দ। এনিয়ে ওই দুই সংগঠনকে নিশানা করলেন কেন্দ্রীয় সংখ্যালঘু দফতরের মন্ত্রী মুখতার আব্বাস নকভি।

আরও পড়ুন-মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ডাকোটায় ভেঙে পড়ল যাত্রীবাহী বিমান, নিহত কমপক্ষে ৯

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বলেন, অযোধ্য বিতর্কের ফয়সলা হয়ে গিয়েছে। তার পরেও বিষয়টি নিয়ে সংঘাত ও বিভেদের পরিবেশ তৈরি করতে চাইছে অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোন্যাল ‘ল বোর্ড ও জমিয়ত।  মুসলিমদের কাছে শুধুমাত্র বাবরি মসজিদটাই ইস্যু নয়, বরং দেশের সমানাধিকার পাওয়াটাই বিষয়।

সংবাদসংস্থা পিটিআইকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে নকভি বলেন, গণতন্ত্রে সবারই আদালতে যাওয়ার অধিকার রয়েছে। কিন্তু কয়েক দশক পুরনো কোনও বিষয়কে খুঁচিয়ে তোলার কোনও অর্থ হয় না। সুপ্রিম কোর্টের রায়ে অযোধ্য মামলার ফয়সলা হয়ে গিয়েছে।  ওই রায়কে সমাজের সব স্তরের মানুষ স্বাগত জানিয়েছেন। কিন্তু এক শ্রেণির মানুষ বুঝতেই চাইছেন না যে সুপ্রিম কোর্টের রায়ের ফলে দেশের ঐক্য শক্ত হয়েছে।

আরও পড়ুন-টালা ব্রিজ ভাঙার কাজ শুরু হবে ১৫ ডিসেম্বর, খরচ ৫০ কোটি টাকা

এদিকে, জমিয়ত সূত্রে খবর, অযোধ্যা রায়ের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে পুনর্বিবেচনার আবেদনের খসড়া তৈরি করে ফেলেছে সংগঠন। আগামী ৩-৪ ডিসেম্বরের মধ্যে এনিয়ে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করবে তারা। অন্যদিকে, আগামী ৯ ডিসেম্বরের মধ্যে সুপ্রিম কোর্টে অযোধ্যা রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন জানাবে মুসিলম পার্সোন্যাল ‘ল বোর্ড। এনিয়ে নকভি বলেন, সমাজে বিভেদ তৈরি করছে ল বোর্ড। সমাজ এই চেষ্টা ভালোভাবে নেবে না।