ধর্ম বদলেও শেষরক্ষা হল না, স্ত্রীকে ফিরে পেতে সুপ্রিম কোর্টে ছত্তিসগঢ়ের 'হিন্দু' তরুণ

বিয়ের পরই সমস্যার সূত্রপাত। অভি‌যোগ, অঞ্জলীকে আটকে দেয় তাঁর বাবা-মা। শুধু তাই নয়, ইব্রাহিমকে এখন প্রতিদিনই খুনের হুমকি শুনতে হচ্ছে

Updated By: Aug 20, 2018, 01:24 PM IST
ধর্ম বদলেও শেষরক্ষা হল না, স্ত্রীকে ফিরে পেতে সুপ্রিম কোর্টে ছত্তিসগঢ়ের 'হিন্দু' তরুণ

নিজস্ব প্রতিবেদন: হিন্দু তরুণীকে বিয়ে করার জন্য ধর্ম বদল করেও নিস্তার নেই। স্ত্রীকে ফিরে পেতে এখন সুপ্রিম কোর্টে দৌড়তে হল ছত্তিসগঢ়ের এক তরুণকে।
মহম্মদ ইব্রাহিম সিদ্দিকি নামে ওই যুবক বিয়ে করেছিলেন অঞ্জলী জৈন নামের এক তরুণীকে। বিয়ে করার জন্য তিনি অঞ্জলীর দাবি মেনে ইব্রাহিম সিদ্দিকি থেকে ধর্ম পরিবর্তন করে আরিয়ান আর্য নাম গ্রহণ করেন। কিন্তু, বিয়ের পরই সমস্যার সূত্রপাত। অভি‌যোগ, অঞ্জলীকে আটকে দেয় তাঁর বাবা-মা। শুধু তাই নয়, ইব্রাহিমকে এখন প্রতিদিনই খুনের হুমকি শুনতে হচ্ছে। সুপ্রিম কোর্টে দায়ের করা এক আবেদনে এমনটাই অভিযোগ করেছেন অঞ্জলীর স্বামী।

আরও পড়ুন-ভুল সরকারের নয়, ছবি বিতর্কে ফারহান আখতারকে উত্তর ডেরেকের

ইব্রাহিম ওরফে আরিয়ানের অভিযোগ, অঞ্জলী ছত্তিসগঢ় হাইকোর্টে জানিয়েছেন তিনি স্বেচ্ছায় তাঁকে বিয়ে করেন। কিন্তু ছত্তিসগঢ় হাইকোর্ট নির্দেশ দিয়েছে, অঞ্জলীকে হয় বাবা-মার সঙ্গে থাকতে হবে, না হলে কোনও হোস্টেলে থাকতে হবে। এরপরই শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হয় ইব্রাহিম। বিষয়টি এখন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় ও প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের বেঞ্চে বিচারাধীন। এই আবেদনের ভিত্তিতে বেঞ্চ ছত্তিসগঢ় সরকারের মতামত জানতে চেয়েছে। 
 
গত ২৫ ফেব্রুয়ারি আরিয়ানকে বিয়ে করার পর নিজের বাড়িতে ফিরে ‌যান অঞ্জলী। কিন্তু বাবা-মাকে তখনও কিছু বলেননি। বাবা-মা বিষয়টি ক্রমশ জানতে পারেন। গত ৩০ জুন বাড়ি থেকে ইব্রাহিমের কাছে চলে আসছিলেন অঞ্জলী। তবে তার আগেই অঞ্জলীকে পুলিস আটক করে একটি হোমে পাঠিয়ে দেয়। এমনটাই অভি‌যোগ ইব্রাহিমের। তাঁর আরও অভি‌যোগ, পুলিস অঞ্জলীকে দিয়ে লিখিয়ে নেয় ‌যে সে তার বাবা-মার সঙ্গেই থাকতে চায়।

আরও পড়ুন-দেহ চুল্লিতে ঢোকানো হচ্ছিল, আচমকাই বেজে উঠল শ্মশান কর্মীর ফোন!

স্ত্রীকে কাছে না পেয়ে শেষপ‌র্যন্ত ছত্তিসগঢ় হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন ইব্রাহিম। তাঁর আবেদনের ভিত্তিতে আদালত অঞ্জলী ও তাঁর বাবাকে ডেকে পাঠায়। সেখানে অঞ্জলী জানায়, তাঁকে জোর করে বাবা-মা ধরে রাখেননি তবে ওই বিয়ের ব্যাপারে তাঁদের ঘোর আপত্তি রয়েছে।

উল্লেখ্য, এরকমই একটি মামলা হয়েছিল কেরলে। সেখানে সাফিন জাহান নামে এক মুসলিম তরুণকে বিয়ে করার জন্য ধর্ম বদল করেন আখিলা অশোকান। কিন্তু হোটেলেকে ফিরে পাওয়ার জন্য আদালতের দ্বারস্থ হন আখিলার বাবা। মামলা গড়ায় সুপ্রিম কোর্ট প‌র্যন্ত। শেষপ‌র্যন্ত আখিলাকে হোস্টেলে থেকে পড়াশোনা শেষ করার অনুমতি দেয় আদালত।