নীরবের ৬৩৭ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করল ইডি

ইডি সূত্রে খবর, হংকং থেকে ২২.৬৯ কোটি টাকার গহনা বাজেয়াপ্ত করে দেশে ফেরানো হয়েছে। নীরব মোদীর নামেই এক বেসরকারি সংস্থায় এই সম্পত্তি গচ্ছিত ছিল। অন্য দিকে ব্রিটেনে ৫৭ কোটি টাকার একটি অ্যাপার্টমেন্টের খোঁজ মিলেছে

Updated By: Oct 1, 2018, 01:34 PM IST
নীরবের ৬৩৭ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করল ইডি
ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন: দেশ-বিদেশ মিলিয়ে ঋণ কেলেঙ্কারিতে অভিযুক্ত হিরে ব্যবসায়ী নীরব মোদীর বিপুল সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করেছে কেন্দ্রীয় গোয়ান্দা সংস্থা। সূত্রের খবর, সেই সব সম্পত্তির মূল্য দাঁড়াবে প্রায় ৬৩৭ কোটি টাকা। সোমবার, এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) জানিয়েছে, বহুমূল্যের গহনা, বিলাসবহুল অ্যাপার্টমেন্ট এবং কিছু ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। ভারত, ব্রিটেন এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে এই সব সম্পত্তি উদ্ধার করা হয়েছে বলে ইডি সূত্রে জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন- কুপ্রস্তাবে রাজি হয়নি মা, প্রতিশোধ নিয়ে মহিলার শিশু কন্যাকে ধর্ষণ যুবকের

চলতি বছরে জানুয়ারিতে, পঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক থেকে বেআইনিভাবে ১৩ হাজার কোটি টাকা হাতিয়ে সপরিবারে দেশ ছাড়া হন নীরব মোদী এবং স্বর্ণব্যবসায়ী মামা মেহুল চোকসি। অ্যান্টিগার নাগরিকত্ব নিয়ে মেহুল গা ঢাকা দিয়েছেন। এ খবর নিজেই প্রকাশ্যে নিয়ে আসেন। কিন্তু নীরবের অবস্থান নিয়ে সন্দিহান ছিলেন গোয়েন্দারা। তবে, অগস্ট সরকারিভাবে জানানো হয়, ব্রিটেনেই রয়েছেন নীরব মোদী।

ইডি সূত্রে খবর, হংকং থেকে ২২.৬৯ কোটি টাকার গহনা বাজেয়াপ্ত করে দেশে ফেরানো হয়েছে। নীরব মোদীর নামেই এক বেসরকারি সংস্থায় এই সম্পত্তি গচ্ছিত ছিল। অন্য দিকে ব্রিটেনে ৫৭ কোটি টাকার অ্যাপার্টমেন্টের খোঁজ মিলেছে। যদিও নীরবের বোন পূরবী মোদীর নামে রয়েছে। বিলাসবহুল এই অ্যাপার্টমেন্টকেও বাজেয়াপ্ত করা হয়। লন্ডনের মার্লিবোন রোডের ম্যারাথন হাউজের ফ্ল্যাটটি ২০১৭ সালে বেলভেদার হোল্ডিং গ্রুপের নামে কেনা হয়। ইডি জানাচ্ছে, এই সংস্থার সঙ্গে পূরবী মোদীর যোগসাজশ রয়েছে। ইডির আরও দাবি, এই সম্পত্তিটি পিএনবি কেলেঙ্কারির টাকায় কেনা হয়েছে।

আরো পড়ুন- বাসর রাতেই ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতা, নববধূকে ধর্ষণ করল স্বামী-দেওর-তান্ত্রিক

নিউ ইয়র্কের সেন্ট্রাল পার্কের ২১৬ কোটি টাকার দুটি অ্যাপার্টমেন্টও বাজেয়াপ্ত করেছে ইডি। এই অ্যাপার্টমেন্টগুলি নীরবের স্ত্রী আমি মোদীর নামে রয়েছে বলে জানায় ইডি। উল্লেখ্য, বিদেশে গিয়ে এ ভাবে সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত কেন্দ্রীয় গোয়েন্দাদের উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। পূরবীর নামে মুম্বইয়ের সাড়ে ১৯ কোটি টাকার আরও একটি ফ্ল্যাট এবং ২৭৮ কোটি টাকার পাঁচটি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট হাতে নিয়েছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা।